৬ই আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ সকাল ৬:৫৬

ডিসেম্বরে মুক্তি পাবে ছবি 1946 Calcutta Killings

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইমঃ মঙ্গলবার, নভেম্বর ৭, ২০১৭,
  • 151 সংবাদটি পঠিক হয়েছে

কলকাতা: 1946 Calcutta Killings ছবিটি আগামী ডিসেম্বর মাসে মুক্তি পাবে বলে আশা প্রকাশ করছেন ছবির পরিচালক মিলন ভৌমিক ৷ ১৯৪৬ সালের দাঙ্গা ও সেই সময় শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের ভূমিকাকে ভিত্তি করে নির্মিত এই ছবিটি তৈরি করতে গিয়ে বার বার বাধার মুখে পড়তে হয়েছে পরিচালককে ৷ আইন আদালতের পাশাপাশি বেশ কিছু কাটছাঁটের পরে অবেশেষে সেন্সর বোর্ড ছবিটিকে ছাড়পত্র দিয়েছে ৷ সোমবার শহরে ওই ছবিটির একটি বিশেষ প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়েছিল৷ তবে বিশেষ প্রদর্শনীই যথেষ্ট নয় এই ছবিটিকে সাধারণ মানুষের কাছে পৌঁছে দেওয়ার জন্য ৷ এজন্য পরিচালক Kolkata24x7 কে জানিয়েছেন, সাধারণ দর্শককে দেখানোর জন্য বিভিন্ন প্রেক্ষাগৃহে ছবিটি ডিসেম্বরে মুক্তি পাবে৷

১৯৪৬-এর দাঙ্গা এবং শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের ভূমিকাকে বিষয় করে হিন্দি ও বাংলা দুটি ভাষাতেই ছবিটি তৈরি করেছেন পরিচালক মিলন ভৌমিক। পরিচালকের মতে শ্যামাপ্রসাদের কথা শুধু বাঙালি নয় গোটা ভারতবাসীরই জানা উচিত ৷ তাই তিনি দুটি ভাষাতেই ছবিটি তৈরির পরিকল্পনা নিয়েছিলেন ৷ শ্যামাপ্রসাদের পাশাপাশি এই ছবিতে তুলে ধরা হয়েছে গোপাল পাঁঠা, রাম চাটুজ্জের মতো ব্যক্তিত্বদের কথা৷ কারণ সেই অশান্ত কলকাতা তথা বাংলায় এইসব ব্যক্তিত্বদের ভূমিকা সাধারণ মানুষের জানা উচিত বলেই তাঁর অভিমত ৷ যদিও ৭০-৭১ বছর আগে ঘটে যাওয়া ঘটনা, কিন্তু তা থেকে আজকের মানুষের শিক্ষা নেওয়া উচিত বলে এই ছবিতে বার্তা দেওয়া হচ্ছে৷

ছবিটির প্রেক্ষাপট যে সময়ের তার বেশ কিছু দিন আগেই নেতাজি সুভাষচন্দ্রে বির্তকিত বিমান দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে বলে ধরা হয়৷ তবুও ছবিতে বার বার এসে পড়েছে নেতাজির প্রসঙ্গ ৷ তখনও যে বাংলার মানুষ মনে করত নেতাজি ফিরে আসতে পারেন এবং তিনি এলেই দেশের মঙ্গল হবে সেই ধারণা প্রতিফলিত হয়েছে ছবিতে ৷ আসলে বঙ্গজীবনে নেতাজি এমন ভাবে জড়িয়ে রয়েছেন বলেই এমনটা করতে হয়েছে বলে যুক্তি দেখিয়েছেন পরিচালক ৷ তাছাড়া শ্যামাপ্রসাদ না-থাকলে পশ্চিমবঙ্গকে যে ভারত থেকে বিচ্ছিন্ন হতে হতো সেটাই তুলে ধরা হয়েছে ৷

তবে সেন্সর বোর্ডে ধারণা হয়েছিল, এই ছবি মুক্তি পেলে সামাজিক সম্প্রীতি ক্ষুণ্ণ হতে পারে৷ তাছাড়া ছবিতে জিন্নার পাশাপাশি জওহরলাল নেহরুকে খারাপ দেখান হয়েছে এই অজুহাতও তোলা হয় ছবিটি আটকে দেওয়ার জন্য ৷ তখন ছবির ছাড়পত্রে জন্য পরিচালক মামলা করেন৷ শেষমেশ বেশ কিছু কাটছাঁট মেনে নিয়ে অবেশেষে সবুজ সংকেত মিলেছে বলে জানিয়েছেন মিলন ভৌমিক৷

এই ছবিতে শ্যামাপ্রসাদের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন এক সময় মহাভারতের টিভি ধারাবাহিকে যুধিষ্ঠিরের চরিত্রে অভিনয় করা গজেন্দ্র চৌহান আর শ্যামাপ্রসাদের মা যোগমায়া দেবীর ভূমিকায় অভিনয় করেছেন সুপ্রিয়া দেবী৷

এই পোস্টটি শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ ...
© All rights Reserved © 2020
Developed By Engineerbd.net
Engineerbd-Jowfhowo
Translate »