২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ রাত ৯:১৫
ব্রেকিং নিউজঃ
অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ বিনির্মাণ করছেন শেখ হাসিনা : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাংবাদিক হত্যা-নির্যাতন কি ‘স্বাভাবিক’ হয়ে উঠল চট্রগ্রামের পটিয়া উপজেলায় প্রায় দেড় শতাধিক সংখ্যালঘু হিন্দু পরিবারকে ভিটে বাড়ি থেকে উচ্ছেদ করে নতুন বাইপাস সড়ক করার অপচেষ্টা চলছে। মিনি পাকিস্তানের প্রবক্তা ফিরহাদ হাকিমের বাইকের পিছনে সওয়ার কেন মমতা ব্যানার্জী ? সংক্ষিপ্ত বিশ্ব সংবাদ : ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১ দিনে ১০০০ ক্যালরি ঝরাবেন কীভাবে অশীতিপর স্বামী-স্ত্রীর মহাধুমধামে পুনঃবিবাহ সৈয়দ আবুল মকসুদ আর নেই প্রকৃতির নীরব কান্না পর্ব -১ সভ্যতার শুরুতে গড়ে ওঠা করাতি সম্প্রদায় এখন প্রায় বিলুপ্ত!

ফরিদপুরে হিন্দু পল্লীতে দলবেধে স্বশস্ত্র হামলা, গুরুতর আহত ৫ জন!!!

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইমঃ মঙ্গলবার, নভেম্বর ৭, ২০১৭,
  • 74 সংবাদটি পঠিক হয়েছে

ফরিদপুর শহরের পূর্বখাবাসপুর তালতলা এলাকার বনিক পল্লীতে হামলার শিকার হয়েছে ৩ নারীসহ ও এক অবুঝ শিশু মোট আহত ৫ ।আক্রান্ত শিশু দীপ দত্ত (৬) এর অবস্থা সংকটাপন্ন অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি।

গতকাল রাত আটার দিকে একই এলাকার কিছু দুষ্কৃতিকারী হটাত চোর চোর বলে একই এলাকার সুজন(১৯) নামক এক যুবকে মারধর করতে করতে বনিক বাড়ি পল্লীর দিকে নিয়ে আসে। হট্টগোল শুনে চান দত্ত(৩৭) এর পরিবার সহ বেশ কিছু নারী ও শিশু এগিয়ে আসলে দুষ্কৃতিকারীরা এদের উপর হামলা চালায়। এতে চান দত্তের শিশু সন্তান দীপ দত্ত (৬),তার স্ত্রী আলো দত্ত (২৮) এবং মানিক বনিক (৪২) এর স্ত্রী শিখা বনিক(৩৮) আহত হয়েছে।এছাড়া একই পল্লীর কানাই বনিকের বাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করেছে ঐ একই দুষ্কৃতিকারীরা।

আক্রান্ত শিশু দীপ দত্ত চোখে মারাত্মক জখমসহ জহুরুল হক চক্ষু ও জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি আছে।গত রাতে তার বাম চোখে অস্ত্রপচার করা হয়েছে।

এ বিষয়ে অস্ত্রোপচারকারি চক্ষু সার্জন ডা. রাহাত আনোয়ার চৌধুরী জানান, বাচ্চাটি আমাদের কাছে আসার সাথেই আমরা ওর বাম চোখের অস্ত্রোপচার করি।চোখটিতে ধারাল কোন কিছুর আঘাত লেগেছে বলে মনে হচ্ছে। যেহেতু আঘাতটি গুরুতর তাই এখনি দৃষ্টি ফিরে পাবার নিশ্চয়তা দিতে পারছি না।

আক্রান্ত আলো দত্ত জানান, আমরা রাতের খাবার খাওয়ার আগে হটাত চেচামেচি শুনে ঘরের বাইরে আসা মাত্র অতরকিত ভাবে আমরাসহ এখানকার সকলের উপরে ২০-২৫ জনের একটি দল ঝাপিয়ে পড়ে। সকলে প্রাণপণে ছুটে পালানোর চেষ্টা করেও আমরা সামনে থাকায় আক্রান্ত হই। আমার ছেলেটাও ওদের হাত থেকে নিস্তার পাইনি ।ওরা আমার বাচ্চাটার চোখে ধারাল কিছুদিয়ে আঘাত করে।

প্রত্যক্ষদর্শী এলাকার নাজমুল হাসান জানান, তালতলা এলাকার তূর্য, পথিক, আমিন, বাশারসহ ২০-২৫ জন বখাটে ছেলে সংঘবদ্ধভাবে ঘটনাটি ঘটিয়েছে।এরা প্রায়শই এলাকায় বিভিন্ন অসামাজিক কাজও করে থাকে।

এব্যাপারে কোতোয়ালি থানার সেকেন্ড অফিসার মো বেলাল জানান, শনিবার রাতে খবর পাওয়ার সাথেই এস আই সামিম ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।যদিও লিখিত কোন অভিযোগ পাইনি তারপর ও আমরা বিষয়টি দেখছি।

এই পোস্টটি শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ ...
© All rights Reserved © 2020
Developed By Engineerbd.net
Engineerbd-Jowfhowo
Translate »