১৭ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ রাত ৪:১৯

অদিতিকে হয়রানির ভিডিও মিলেছে, শাস্তির আশ্বাস

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইমঃ শুক্রবার, মার্চ ৯, ২০১৮,
  • 128 সংবাদটি পঠিক হয়েছে
 

৭ মার্চের সমাবেশে মিছিল নিয়ে আসার সময় রাজধানীর বাংলামোটর এলাকায় ভিকারুননিসা নুন স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষার্থী অদিতি বৈরাগীকে হয়রানির ভিডিও পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। এই ঘটনা যারা ঘটিয়েছে, তাদের শাস্তি পেতে হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

মন্ত্রী বলেন, ‘ভিডিও ফুটেজ দেখে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। অপরাধী যে দলেরই হোক ছাড় দেওয়া হবে না।’

১৯৭১ সালের ৭ মার্চ সোহরাওয়ারর্দী উদ্যানে বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ভাষণের স্মরণে বুধবার একই ময়দানে জনসভা করে আওয়ামী লীগ। আর এ জন্য আশপাশের বিভিন্ন সড়কে যান চালাচল নিয়ন্ত্রিত ছিল। এ কারণে হেঁটে চলতে বাধ্য হয়েছে মানুষ। আর চলার পথে জনসভায় আসা নেতা-কর্মীদের হাতে বেশ কয়েকজন নারী হয়রানির শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

এদের মধ্যে ভিকারুননিসার ছাত্রী অদিতি বৈরাগী ফেসবুকে তার অভিজ্ঞতা বর্ণনা করার সঙ্গে সঙ্গে তা ছড়িয়ে যায়। অদিতি জানান, বাংলামোটর এলাকায় সোহরাওয়ার্দীর সমাবেশে যাওয়া একটি মিছিল থেকে তাকে হয়রানি করা হয়েছে। তাকে থাপ্পরও দেয়া হয়েছে। এই ঘটনায় মানসিকভাবে ভয়াবহ বিপর্যস্ত জানিয়ে অদিতি এমনও লিখেন ‘আমি এই শুয়রদের দেশে থাকব না।’

অদিতির পাশাপাশি ইশরাতুল শোভা, আফরিন আসাদ মেঘলাসহ আরও বেশ কয়েকজন তরুণীও ফেসবুকে একই ধরনের অভিজ্ঞতার কথা লিখেছেন।

একজন লিখেছেন ‘আল্লাহ কেন মেয়েদের দুইটা হাত দিল? দুইটা হাত দিয়ে এতগুলো হাত থেকে বুক, পেট বাঁচাব, ওড়না ধরে রাখব নাকি তাদের হাতগুলো সরাব?’

অন্য একজন লিখেন, ‘হল থেকে বের হয়ে কোনও রিকশা পাইনি। কেউ শাহবাগ যাবে না। হেঁটে শহীদ মিনার পর্যন্ত আসতে হয়েছে। আর পুরোটা রাস্তাজুড়ে ৭ মার্চ পালন করা দেশভক্ত সোনার ছেলেরা একা মেয়ে পেয়ে ইচ্ছামতো টিজ করছে। নোংরা কথা থেকে শুরু করে যেভাবে পারছে টিজ করছে।’

বৃহস্পতিবার রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে এক অনুষ্ঠান শেষে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে এ বিষয়ে জানতে চান সাংবাদিকরা। ব্র্যাক স্কুল অব পাবলিক হেলথের আয়োজনে ‘প্রোমোটিং এডোলসেন্ট নিউট্রিশন’ শীর্ষক আলোচনায় অংশ নিতে তিনি সেখানে গিয়েছিলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘বুধবার বাংলা মোটরে ভিকারুননিসা নূন স্কুলের শিক্ষার্থীকে হয়রানির ঘটনার ভিডিও ফুটেজ হাতে এসেছে। দোষীদের শাস্তির আওতায় আনা হবে।’

‘উল্লেখিত ঘটনার আশপাশে সবখানেই সিসি-ক্যামেরা আছে। ঘটনা ঘটলে কারা কারা দায়ী এবং তাদের রাজনৈতিক পরিচয় কী তা খুঁজে বের করা কঠিন কিছু হবে না। না ঘটলেও হয়তো রটনার রহস্য উদঘাটিত হবে। উত্তেজিত হয়ে এখনি প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত না করে অপেক্ষা করাই ভালো।’

‘একটি ঘটনা আমার নজরে এসেছে। ভিকারুননেসানুন স্কুল বা কলেজের একটি ছাত্রী বাংলামটর মোড়ে এসে পৌঁছলে কয়েকজন উৎশৃঙ্খল যুবক তাকে শ্লীলতাহানি করেছে বলে জানিয়েছে। গতকাল সমাবেশ ছিলো লক্ষ মানুষের ঢল নেমেছিলো সমাবেশে। সেসময় এঘটনা ঘটে। সেখানে আমাদের পুলিশ ছিলো। তারা মেয়েটিকে রক্ষা করে বাসায় পাঠিয়ে  দেয়।’

তিনি আরও বলেন, ‘রাতে মেয়েটির বাসায় পুলিশ গিয়ে জবানবন্দি নিয়েছে। যারা ঘটনার সঙ্গে জড়িত, তাদের ভিডিও ফুটেজ দেখে যথাযথ শাস্তির ব্যবস্থা ইতিমধ্যেই করা হয়েছে। ভিডিও ফুটেজ আমাদের হাতে এসেছে। জড়িতদের ছবি প্রকাশ করা হবে।’

এই পোস্টটি শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ ...
© All rights Reserved © 2020
Developed By Engineerbd.net
Engineerbd-Jowfhowo
Translate »