১৬ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ সকাল ৮:৫৯
ব্রেকিং নিউজঃ
শিবালয়ে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের কাছে চাঁদা না পেয়ে ছাত্রলীগের তাণ্ডব ইসলাম ধর্ম কবুল না করলে দেশ ছাড়ার হুমকি সিটি স্ক্যান করাতে হাসপাতালে খালেদা জিয়া আফগানিস্তান থেকে মার্কিন সৈন্য প্রত্যাহারের সিদ্ধান্তে উদ্বিগ্ন ভারত সুখরঞ্জন দাশগুপ্ত, বাংলাদেশ থেকে বিতাড়িত এক বর্ণ বিদ্ধেষীর লেখার প্রতিবাদ! পহেলা বৈশাখেও ফের সুনামগঞ্জে হিন্দু সম্প্রদায়ের উপর হামলা বহিরাগত তত্ত্ব’ ভিত্তিক বিজেপি বিরোধিতা ব্যুমেরাং হতে চলেছে !! শরীরে অক্সিজেনের ঘাটতি পূরণ করতে যা খাবেন লকডাউন বিধিনিষেধ কঠোরভাবে বাস্তবায়ন করতে হবে: আইজিপি করোনায় ব্যতিক্রমধর্মী পহেলা বৈশাখ উদযাপন করেছি আমরা: গ্লোরিয়া ঝর্ণা সরকার

মাঝ রাস্তায় নাজেহাল বরিশাল সিটি মেয়র আ.হা. কামাল

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইমঃ রবিবার, এপ্রিল ১, ২০১৮,
  • 109 সংবাদটি পঠিক হয়েছে

 বরিশাল বিএনপির রাজনীতিতে কিট-পতঙ্গের চেয়েও মূল্যহীন হয়ে পড়েছেন সিটি মেয়র আহসান হাবিব কামাল। বিএনপি-যুবদল-ছাত্রদলের মূল ধারার নেতা-কর্মী এমনকি সমর্থকরাও তাকে “বিএনপির কেউ নয়” বলে আখ্যায়িত করতে চায়। যা একাধিক রাজনৈতিক কর্মসূচিতে প্রকাশ্যে কামাল-বিরোধী স্লোগান ও তাকে নাজেহাল-লাঞ্ছিতর মাধ্যমে প্রমাণিত হয়েছে। আজ রোববারও সদর রোডে মাঝ রাস্তায় যুবদল-ছাত্রদল নেতা-কর্মীরা তাকে দালাল, ভুয়া বলে কটুক্তি করে। একপর্যায়ে তাকে নিয়ে ধস্তাধস্তি পরিস্থিতির সৃষ্টি হলে যুগ্ম মহাসচিব মজিবর রহমান সরোয়ারের হস্তক্ষেপে ক্ষুব্ধ নেতৃবৃন্দেরর হাত থেকে রক্ষা পান তিনি। প্রত্যক্ষদর্শীরা বলেন, পেছন তাকে ধাক্কাও দেওয়া হয় কামালকে। সরোয়ার না থাকলে হয়তো আরো বেশি বেকায়দা পরিবেশ সৃষ্টি হতো সেখানে।ক্ষুব্ধ একাধিক নেতা অভিযোগ করে বলেন, সাধারণ নেতা-কর্মীরা যখন রাজনৈতিক মামলায় হাজিরা দিতে দিতে দিশেহারা, কামাল তখন ব্যস্ত আওয়ামী লীগের সঙ্গে আঁতাত করে কমিশনের টাকা গোনায়। বিএনপির সাইনবোর্ডে মেয়র হয়ে চোখে কাঠের চশমা পড়েছেন। যাদের শ্রম-অর্থে আজ তিনি মেয়রের চেয়ারে, তাদের চিনতেই পারছেন না।

দলীয় সূত্র মতে, অ্যাড. সরোয়ার নেতা-কর্মীদের নিয়ে বেলা ১২টার দিকে সদর রোড টাউন হলের সামনে, প্রেসক্লাব এলাকায় বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবি সম্বলিত লিফলেট বিতরণ করছিলেন। হঠাৎ জনা বিশেক লোক নিয়ে সেখানে হাজির হয়ে আলাদা করে লিফলেট দিতে শুরু করেন পদহীন নেতা কামাল। তাকে দেখেই ক্ষোভে ফেটে পড়েন সরোয়াের সঙ্গীরা। একে অন্যের সাথে তাকে নিয়ে বিষেদাগার করেন। একপর্যায়ে ছাত্র-যুবদল নেতারা মেয়র কামালকে দালাল, ভুয়া বলে কটুক্তি করে। কামাল অনুসারিরা পাল্টা জবাব দেয়ার চেষ্টা করলে বাকবিতন্ডা হয় দুই পক্ষের। এসময় কামালকে পেছন থেকে ধাক্কা দেয়। অবস্থা বেগতিক দেখে যুগ্ম মহাসচিব সরোয়ার নেতা-কর্মীদের শান্ত করেন।উল্লেখ্য, সিটি নির্বাচনে মেয়র হওয়ার পর আ.হা. কামাল দলীয় নেতা-কর্মীদের খোঁজ নেননি। যে খবর কেন্দ্রে পৌছালে দলে গুরুত্বহীন হয়ে পড়েন। দলীয় কোন সংগঠনেও পদ নেই তার। যে কারণে এখানকার বিএনপির বৃহৎ অংশের চক্ষুশূলে পরিণত হন কামাল। গত বছর নগরীর অশ্বিনী কুমার হলে অনুষ্ঠিত একটি কর্মসূচিতে কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে নেতা-কর্মীরা কামালের পল্টিবাজি তুলে ধরেন। এছাড়া চলতি বছর কেন্দ্রীয় নেতাদের লঞ্চে এগিয়ে দিতে গিয়ে সেখানেও নেতৃবৃন্দের রোষানলে পড়েন কামাল।বেশ কিছুদিন পুর্বৈ মেয়র কামাল বিরোধী দলের হলেও জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আবুল হাসানাত আবদুল্লাহকে রাজনৈতিক অভিবাবক মেনে বক্তব্য দিয়েছিলেন।যার ভিডিও রয়েছে আমাদের কাছে।

এই পোস্টটি শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ ...
© All rights Reserved © 2020
Developed By Engineerbd.net
Engineerbd-Jowfhowo
Translate »