৬ই মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ বিকাল ৩:১৫
ব্রেকিং নিউজঃ
সোনালী হাতছানিতে উথাল-পাতাল রূপোলী আকাশ !! ফের আর একবার ঐতিহাসিক নাম হয়ে উঠতে চলেছে নন্দীগ্রাম !! উজিরপুরে ঝরে পড়া শিশুদের নিয়ে ভোসড এর উপানুষ্ঠানিক শিক্ষার অবহিতকরণ সভা প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম আর নেই কিছু বিশেষ ফ্যাক্টর বিজেপি’র সম্ভাবনা জোরদার করছে !! ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এক দিনের সফরে আসছেন বৃহস্পতিবার বিজেপি ক্ষমতায় এলে অরাজকতা থাকবে না, বললেন যোগী ৪১তম বিসিএস নিয়ে যা বললেন পিএসসির চেয়ারম্যান ভারতের অভ্যন্তরে বসবাসকারী সশস্ত্র পাকিস্তানপন্থীরা কী আদৌ শান্তির পক্ষে? খায়রুল বাশার লিটনকে সাতলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হিসেবে পুনরায় দেখতে চায় ইউনিয়নবাসী

চাঁদে যাওয়ার পথে এলিয়েন দেখেছিলেন

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইমঃ বুধবার, এপ্রিল ১১, ২০১৮,
  • 97 সংবাদটি পঠিক হয়েছে

চাঁদের মাটিতে মানুষের প্রথম পা রাখার পঞ্চাশ বছর পূর্তি সামনের বছরেই। কিন্তু এখনও সমাধান হয়নি একটি রহস্যের। নিল আর্মস্ট্রং-এর পরেই দ্বিতীয় মানুষ হিসেবে চাঁদের মাটিতে পা রাখা এডুইন বাজ অলড্রিন দাবি করেছিলেন অ্যাপোলো ১১ যানে করে চাঁদের দিকে যাওয়ার সময়ে তিনি ও তাঁর আরও তিন সঙ্গী নভচর এআই ওর্ডেন, এডগার মিচেল ও গর্ডন কুপার একটি রহস্য উড়ন্ত বস্তুকে দেখেছিলেন, যা ভিনগ্রহীদের মহাকাশযান বলেই তাঁদের বিশ্বাস।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম ‘মিরর’-এ প্রকাশিত এক প্রতিবেদন থেকে জানা যাচ্ছে, মার্কিন প্রদেশের ওহায়োতে অবস্থিত ‘দ্য ইনস্টিটিউট অব বায়ো অ্যাকোয়াস্টিক বায়োলজি’ অলড্রিন ও তার সঙ্গীদের ‘ভয়েস প্যাটার্ন’ পরীক্ষা করে দেখেছেন, তারা মোটেই মিথ্যা বলছেন না। যা বলছেন, সেটা তারা বিশ্বাস করেই বলছেন! নিশ্চিত ভাবেই এই ঘটনা ‘ইউফো তত্ত্ব’তে বিশ্বাসীর দাবিকে আরও জোরালো করে তুলবে।

২০০৫ সালে ‘ফার্স্ট অন দ্য মুন: দ্য আনটোল্ড স্টোরি’ নামের একটি ডকুমেন্ট্রিতে অলড্রিন জানিয়েছিলেন তিনি ও তার সঙ্গীরা একটি ইউফো দেখেছিলেন চাঁদে যাওয়ার পথে। পরবর্তী সময়ে অলড্রিন দাবি করেছিলেন, তাঁর সেই বক্তব্যকে সম্পাদনা করে ডকুমেন্ট্রিতে ব্যবহার করা হয়েছিল। তার ইঙ্গিত ছিল, তাঁর ওই বক্তব্যকে ‘গুরুত্বহীন’ করতেই এমনটা করা হয়েছিল। গত বছরে অলড্রিন জানিয়েছিলেন, তিনি ভিনগ্রহীদের অস্তিত্বে বিশ্বাস করেন।

অবশেষে অলড্রিন-সহ বাকিদের বক্তব্যকে পরীক্ষা করে দেখা গিয়েছে, তারা যা দাবি করেছেন, তা ‘সত্যি’ ভেবেই বলেছেন। অলড্রিন অবশ্য জানিয়েছেন, যুক্তি দিয়ে তিনি তার দাবিকে ব্যাখ্যা করতে পারবেন না। কিন্তু যা বলছেন, তা মিথ্যা নয়, তিনি সত্যিই মহাকাশে অজানা উড়ন্ত বস্তুকে ভেসে বেড়াতে দেখেছিলেন।

সারা পৃথিবী জুড়েই গত কয়েক দশক ধরে বহু মানুষ দাবি করেছেন, তারা আকাশের গায়ে অজানা গোলক দেখেছেন, যা আসলে ভিনগ্রহের প্রাণীদের মহাকাশযান। সেই নিয়ে বিতর্ক আজও চলেছে। অলড্রিনের মতো কিংবদন্তি ব্যক্তিত্বের এমন দাবি সেই বিশ্বাসকেই আরও জোরালো করে তুলল যে, ভিনগ্রহের বুদ্ধিমানরা পৃথিবীর উপরে নজরদারি চালিয়ে যাচ্ছে।

এই পোস্টটি শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ ...
© All rights Reserved © 2020
Developed By Engineerbd.net
Engineerbd-Jowfhowo
Translate »