২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ রাত ৮:৫৯
ব্রেকিং নিউজঃ
অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ বিনির্মাণ করছেন শেখ হাসিনা : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাংবাদিক হত্যা-নির্যাতন কি ‘স্বাভাবিক’ হয়ে উঠল চট্রগ্রামের পটিয়া উপজেলায় প্রায় দেড় শতাধিক সংখ্যালঘু হিন্দু পরিবারকে ভিটে বাড়ি থেকে উচ্ছেদ করে নতুন বাইপাস সড়ক করার অপচেষ্টা চলছে। মিনি পাকিস্তানের প্রবক্তা ফিরহাদ হাকিমের বাইকের পিছনে সওয়ার কেন মমতা ব্যানার্জী ? সংক্ষিপ্ত বিশ্ব সংবাদ : ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১ দিনে ১০০০ ক্যালরি ঝরাবেন কীভাবে অশীতিপর স্বামী-স্ত্রীর মহাধুমধামে পুনঃবিবাহ সৈয়দ আবুল মকসুদ আর নেই প্রকৃতির নীরব কান্না পর্ব -১ সভ্যতার শুরুতে গড়ে ওঠা করাতি সম্প্রদায় এখন প্রায় বিলুপ্ত!

মতুয়া ধর্মানুভূতিতে আঘাত হানার গুরুতর অভিযোগ মতুয়া মিশনের জনৈক কর্মীর বিরুদ্ধে : সোশ্যাল মিডিয়া তোলপাড়।

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইমঃ রবিবার, মে ২৭, ২০১৮,
  • 73 সংবাদটি পঠিক হয়েছে
 
বিশ্বের কোটি কোটি মতুয়া ভক্তের পরমারাধ্য, শ্রী শ্রী গুরুচাঁদ ঠাকুরকে অবমাণনার গুরুতর অভিযোগ উঠেছে, পদ্মনাভ ঠাকুরের নেতৃত্বাধীন মতুয়া মিশনের জনৈক কর্মীর বিরুদ্ধে। সম্রাট বালা নামের ঐ অভিযুক্ত ব্যক্তি, মতুয়া যুব মিশনের, গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীর ওড়াকান্দি ইউনিয়ন কমিটির সাধারন সম্পাদক। জানা গেছে, গত ১৫ এপ্রিল সম্রাট বালা এক ফেসবুক স্ট্যাটাসের মাধ্যমে দাবি করেন, শ্রী শ্রী হরি- গুরুচাঁদ যুব মিশনের মহাসচিব, প্রভাষক মিন্টু বিশ্বাসের রূপ ধরে স্বয়ং গুরুচাঁদ ঠাকুর এসেছিলেন, কাশিয়াণীর মল্লকান্দিতে কোন একটা মতুয়া সভায়। এই স্ট্যাটাস প্রকাশের কয়েকদিনের মধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় এ নিয়ে ব্যাপক বিতর্কের সূত্রপাত হয়। অধিকাংশ মতুয়া অনলাইন এ্যাক্টিভিস্ট সম্রাটের বিরুদ্ধে ধর্ম অবমাণনার অভিযোগ এনেছেন। কয়েকদিন আগে, মতুয়া অনলাইন এ্যাক্টিভিস্টদের মাঝে জনপ্রিয় মুখ, তরুন মতুয়া গবেষক চিন্ময় কর সবুজ এ নিয়ে তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়ে একটি ফেসবুক স্ট্যাটাস প্রকাশ করেন। কয়েক ঘন্টার মধ্যে ঐ স্ট্যাটাসটির শতাধিক কপিপোস্ট ছড়িয়ে পড়ে সোশ্যাল মিডিয়ার। ঐ স্ট্যাটাসে চিন্ময় কর সবুজ দাবি করেন, মিন্টু বিশ্বাসকে ‘ভগবান’ বানিয়ে , সরলপ্রাণ মতুয়াদের বিভ্রান্ত করে , ধর্মব্যবসা ফাঁদার ধান্দা করছে একটি কুচক্রী মহল। তিনি সম্রাটের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা গ্রহনের জোর দাবি জানান। এ ব্যাপারে জানতে চাইলে, চিন্ময় ফোনে প্রতিবেদককে জানান, বিশ্বের কোটি কোটি দলিত হিন্দুর পূজিত ভগবানকে, একজন সাধারন ব্যক্তির সাথে তুলনা করে, সম্রাট বালা আমাদের পবিত্র ধর্মবিশ্বাসে চরম আঘাত হেনেছেন।
 
এ ব্যাপারে, শ্রী শ্রী হরি- গুরুচাঁদ মতুয়া মিশনের সভাপতি পদ্মনাভ ঠাকুরের ভূমিকার কঠোর সমালোচনা করে চিন্ময় বলেন, পদ্মনাভ ঠাকুর নিজেকে ‘প্রতিভূ অবতার ‘ বলে দাবি করে থাকেন। অথচ তিনি এই জঘণ্য ধর্ম অবমাণনাকারীকে বহিষ্কার না করে, প্রশ্রয় দিচ্ছেন। আমি এর তীব্র নিন্দা জানাই। উল্লেখ্য, সম্রাট বালা গোপালগঞ্জের কাশিয়াণী উপজেলার ওড়াকান্দি গ্রামের বাসিন্দা। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সম্রাট স্থানীয়ভাবে ‘গাঁজা সম্রাট’ নামে পরিচিত। মাদক ব্যবসার গুরুতর অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। এ বিষয়ে তার মতামত জানতে চাইলে, তিনি ফোনে অশ্লীল গালিগালাজ করেন প্রতিবেদককে। এই ধর্ম অবমাণনার ব্যাপারে মতামত চাইলে, বাংলাদেশ মতুয়া মহাসংঘের সিনিয়র সহ সভাপতি, সুব্রত ঠাকুর জানান, ফেসবুকে এ ধরনের অপপ্রচার মোটেই উচিত নয়। এজন্য সম্রাটকে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাওয়া উচিত। বাংলাদেশের আরেক প্রভাবশালী মতুয়া নেতা, সাগর সাধু ঠাকুরের কাছে মতামত জানতে চাইলে, তিনি তীব্র ভাষায় নিন্দা ও ক্ষোভ জানান। সর্বশেষ প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, সম্রাট বালার বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা গ্রহনের দাবিতে প্রবল জনমত গড়ে উঠছে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

এই পোস্টটি শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ ...
© All rights Reserved © 2020
Developed By Engineerbd.net
Engineerbd-Jowfhowo
Translate »