১৬ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ সকাল ৯:২৯
ব্রেকিং নিউজঃ
শিবালয়ে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের কাছে চাঁদা না পেয়ে ছাত্রলীগের তাণ্ডব ইসলাম ধর্ম কবুল না করলে দেশ ছাড়ার হুমকি সিটি স্ক্যান করাতে হাসপাতালে খালেদা জিয়া আফগানিস্তান থেকে মার্কিন সৈন্য প্রত্যাহারের সিদ্ধান্তে উদ্বিগ্ন ভারত সুখরঞ্জন দাশগুপ্ত, বাংলাদেশ থেকে বিতাড়িত এক বর্ণ বিদ্ধেষীর লেখার প্রতিবাদ! পহেলা বৈশাখেও ফের সুনামগঞ্জে হিন্দু সম্প্রদায়ের উপর হামলা বহিরাগত তত্ত্ব’ ভিত্তিক বিজেপি বিরোধিতা ব্যুমেরাং হতে চলেছে !! শরীরে অক্সিজেনের ঘাটতি পূরণ করতে যা খাবেন লকডাউন বিধিনিষেধ কঠোরভাবে বাস্তবায়ন করতে হবে: আইজিপি করোনায় ব্যতিক্রমধর্মী পহেলা বৈশাখ উদযাপন করেছি আমরা: গ্লোরিয়া ঝর্ণা সরকার

বিজেপি টিকিট বাতিল করেনি, বয়স ৯২ হয়েছে তাই রিটায়ার্ড নিয়েছি! কংগ্রেস,AAP মিথ্যা প্রচার বন্ধ করুন।

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইমঃ বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ১৮, ২০১৯,
  • 65 সংবাদটি পঠিক হয়েছে

ভারতী জনতা পার্টি অর্থাৎ BJP লোকসভা নির্বাচনের জন্য তাদের প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করেছে। ২,৩ টি দফায় বিজেপি তাদের প্রার্থী তালিকা সার্বজনিক করেছে। এই তালিকায় লাল কৃষ্ণ আডবানির নাম নেই। উনি বর্তমানে গান্ধীনগর আসন থেকে সাংসদ রয়েছেন। তবে এবার বিজেপি ওই আসন থেকে অমিত শাহকে নামিয়েছেন। অমিত শাহ বিজেপির বর্তমান সভাপতি। লাল কৃষ্ণ আডবাণী রিটায়ার্ড হয়েছেন উনার বয়স ৯২ বছর।

লালকৃষ্ণ আডবানির নাম লোকসভা পার্থী তালিকায় নেই এই নিয়ে কংগ্রেস, আম আদমি পার্টি, তৃণমূল কংগ্রেসের সমর্থকরা চিৎকার করা শুরু করে দিয়েছে। লালকৃষ্ণ আডবানি নিজের মুখে কিছুই বলেননি কিন্তু বিরোধী দলগুলির দাবি মোদী ও অমিত শাহ আডবানীকে কোণঠাসা করেছেন। বিরোধী পার্টিগুলির দাবি অমিত শাহ আডবানীকে অসম্মান করেছেন। আডবানীকে নিয়ে বিরোধী দলগুলি কিভাবে রাজনীতি শুরু করেছে সেটার একটা টুইট স্যাম্পেল নীচে দেওয়া হয়েছে।

জানিয়ে দি, বিজেপি লালকৃষ্ণ আডবানির টিকিট কাটেনি। উনি অবসর নিয়েছেন।বিজেপির বিরুদ্ধে বলার মতো বিরোধী। দলগুলির কাছে কোনো ইস্যু নেই তাই মিথ্যা প্রচার করে মানুষকে ভ্রমিত করার কাজ চালানো হচ্ছে। লালকৃষ্ণ আডবাণী কখনোই বলেননি যে উনার টিকিট হয়েছে। কিন্তু বিরোধী দলগুলি আডবাণীজিকে নিয়ে রাজনীতি শুরু করে দিয়েছে। অবশ্য মনে রাখা উচিত কংগ্রেস সেই পার্টি যারা সোনিয়া গান্ধীর কথায় এক সময় তৎকালীন প্রাক্তন কংগ্রেস সভাপতি সীতারাম কেশরীকে দিল্লী দপ্তরের বাথরুমে আটকে রেখেছিলেন।

লক্ষণীয় বিষয় এই যে রাহুল গান্ধী কংগ্রেস সভাপতি আর অমিত শাহ বিজেপির সভাপতি। রাহুল গান্ধী পার্টিতে যোগদান করেই রাজার ছেলের মতো লোকসভার টিকিট পেয়ে গেছিলেন। কিন্তু অমিত শাহ বছরের পর বছর পরিশ্রম করে আজ লোকসভার টিকিট পেয়েছেন।

এই পোস্টটি শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ ...
© All rights Reserved © 2020
Developed By Engineerbd.net
Engineerbd-Jowfhowo
Translate »