২২শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ রাত ১১:৩৯
ব্রেকিং নিউজঃ
জুলাইয়ের আগে করোনার টিকা রপ্তানি অনিশ্চিত : সেরাম ইনস্টিটিউট পশ্চিমবঙ্গ ষষ্ঠ দফার ভোট মোটামুটি শান্তিপূর্ণ, সফর বাতিল মোদির এত মৃত্যু এত শূন্যতা আগামীকালের ষষ্ঠ দফার ৪৩-টি আসনে কোন দল এগিয়ে !! বাংলাদেশের ভোটার হয়ে কি ভাবে ভারতের বিধান সভায় নির্বাচন করছেন আলো রানী সরকার ? করোনায় মারা গেলেন কবি শঙ্খ ঘোষ বিজেপি মন্ত্রীসভার প্রধান মুখ হতে পারেন যাঁরা !! ঠিকাদারকে টাকা পরিশোধ না করায় থমকে গেছে উজিরপুরে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মান কাজ ।। ধুলো বালীতে ফ্যাকাশে হয়ে আছে ম্যূরাল।। আওয়ামী লীগ নেতাকর্মিদের ক্ষোভ।। ফিরহাদের ভিডিয়ো নিয়ে কমিশনে বিজেপি, তৃণমূল প্রার্থীকে নিষিদ্ধ করার দাবি জানাল গেরুয়া শিবির পশ্চিমবঙ্গে এক দিনে মোদির ৪ সভা

স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর আগেই জনগণ পরিবর্তন আনবে: জন্মদিনে ড. কামাল

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইমঃ শনিবার, এপ্রিল ২০, ২০১৯,
  • 58 সংবাদটি পঠিক হয়েছে

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন বলেছেন, জনগণ সম্পৃক্ত থাকলে যেকোনও আন্দোলন সফল হবে। স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর আগেই আন্দোলনের মাধ্যমে জনগণ পরিবর্তন আনতে সফল হবে বলে আশাও প্রকাশ করেন তিনি। 

শনিবার নিজের ৮৩তম জন্মদিন উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে তিনি এসব বলেন। সকালে তিনি রাজধানীর মতিঝিলের ইডেন কমপ্লেপে গণফোরামের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে পৌঁছালে নেতা-কর্মীরা তাকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান। পরে কেক কাটা হয়। দলের নির্বাহী সভাপতি অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মোহসীন মন্টু তাকে কেক খাইয়ে দেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন গণফোরাম নেতা মফিজুল ইসলাম খান কামাল, আলতাফ হোসেন, সিরাজুল হক, অধ্যাপক আবু সাইয়ীদ, রেজা কিবরিয়া, মেজর জেনারেল (অব.) আ ম সা আ আমিন, মহসিন রশিদ, জগলুল হায়দার আফ্রিক, মোশতাক আহমেদ, রফিকুল ইসলাম পথিক প্রমুখ।

ড. কামাল হোসেন বলেন, দেশের জনগণ আন্দোলনের মাধ্যমে সফল হবে। কোটা আন্দোলন, নিরাপদ সড়ক আন্দোলনসহ গণতান্ত্রিক আন্দোলনে যেসব তরুণ সম্পৃক্ত ছিলেন তাদের জন্য সামনের দিনগুলোতে উজ্জ্বল ভবিষ্যত অপেক্ষা করছে। স্বাধীনতার ৫০ বর্ষ পূর্তির আগেই তারা সফল হবেন। এই সাফল্যে দেশ আরও এগিয়ে যাবে।

গণফোরামে যোগ দেওয়া নেতাদের নাম উচ্চারণ করে তিনি বলেন, এবার ভালো ভালো লোকজন তাদের দলে যোগ দিয়েছেন। তারা প্রত্যেকেই বিশিষ্ট ব্যক্তি। গণফোরাম কর্মক্ষম এবং জনপ্রিয়তা বাড়ছে বলেই তারা এই দলে এসে অবদান রাখতে চাইছেন। এখন তাদেরকে সাংগঠনিক কাজে নিয়োজিত রাখতে হবে। সদস্য সংগ্রহ বাড়াতে হবে। এই দলকে জাতীয় দলে পরিণত করে সব মহলে প্রতিনিধিত্ব বাড়াতে হবে।

দলকে শক্তিশালী করার উপর জোর দিয়ে গণফোরাম সভাপতি আরও বলেন, শক্তিশালী সংগঠন ছাড়া অর্থপূর্ণ কাজ করা যাবে না। দেশে পরিবর্তন আনা যাবে না। গণফোরাম টাকার বিনিময়ে রাজনীতি করে না। তারা জনগণের উপর ভিত্তি করে অসাম্প্রদায়িক রাজনীতি করেন।

ড. কামাল বলেন, গঠনমূলক রাজনীতির মধ্য দিয়ে পরিবর্তন আনতে হবে। কার্যকর গণতন্ত্রের জন্য সেই পরিবর্তনটা হতে হবে। তাদের গঠনমূলক রাজনীতি ও কর্মসূচির ভিত্তিতে যে রাজনীতি দেশে গড়ে উঠছে, তার মধ্য দিয়ে দেশে আকাঙ্খিত পরিবর্তন আনতে পারবেন বলে তিনি প্রত্যাশা করেন

এই পোস্টটি শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ ...
© All rights Reserved © 2020
Developed By Engineerbd.net
Engineerbd-Jowfhowo
Translate »