২৫শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ রাত ৪:৫২

ঝুঁকিপূর্ণ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের তালিকা চেয়েছেন হাইকোর্ট

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইমঃ মঙ্গলবার, মে ৭, ২০১৯,
  • 154 সংবাদটি পঠিক হয়েছে

দেশের সব সরকারি-বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, মাধ্যমিক স্কুল ও মাদ্রাসায় কতগুলো ভবন ঝুঁকিপূর্ণ রয়েছে, তা জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট।

স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের সচিব ও প্রধান প্রকৌশলীকে আগামী তিন মাসের মধ্যে জরিপ চালিয়ে এ-সংক্রান্ত প্রতিবেদন দাখিল করতে বলা হয়েছে। এ ছাড়া ঝুঁকিপূর্ণ ভবন সংস্কার করে তা শিক্ষার্থীদের জন্য নিরাপদ ও পরিবেশবান্ধব উপযোগী করারও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

বিচারপতি জেবিএম হাসান ও বিচারপতি মো. খায়রুল আলম সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ মঙ্গলবার রুলসহ এই আদেশ দেন। রুলে ঝুঁকিপূর্ণ ভবন নিরাপদ বা ঝুঁকিহীন করতে বিবাদীদের নিষ্ক্রিয়তা কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না এবং এই স্তরের শিক্ষাঙ্গনের পরিবেশ নিরাপদ ও শিক্ষাবান্ধব করতে কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না, তা জানতে চাওয়া হয়েছে।

আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে শিক্ষা সচিব, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা সচিব, স্বাস্থ্য সচিব, স্থানীয় সরকার সচিব, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী ও অতিরিক্তি প্রধান প্রকৌশলীকে এই রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

আদালতে রিট আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার হুমায়ুন কবির পল্লব। সঙ্গে ছিলেন আইনজীবী মোজাম্মেল হক ও মাজেদুল কাদের। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মোতাহার হোসেন সাজু।

বরগুনার তালতলীতে স্কুল ভবনের ছাদ ধসে গত মাসে এক শিশুর মৃত্যুর পর সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী হাসান তারেক এবং মানবাধিকার সংগঠন ল’ অ্যান্ড লাইট ফাউন্ডেশনের পক্ষে আইনজীবী হুমায়ুন কবির হাইকোর্টে একটি রিট দায়ের করেন।

রিটে নিহত শিক্ষার্থীর পরিবারকে এক কোটি টাকা এবং আহতদের ১০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়ার পাশাপাশি আহতদের সুচিকিৎসা নিশ্চিত করার জন্য আবেদনে বলা হয়েছে।

এ ছাড়া দুর্ঘটনা এড়াতে দেশের সব সরকারি-বেসরকারি প্রাথমিক ও মাধ্যমিক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ভবন জরিপ করার নির্দেশনাও রিটে চাওয়া হয়।

এই পোস্টটি শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ ...
© All rights Reserved © 2020
Developed By Engineerbd.net
Engineerbd-Jowfhowo
Translate »