২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ সন্ধ্যা ৬:২২
ব্রেকিং নিউজঃ

মমতা বললেন, লা ইলাহা ইল্লাল্লাহু মুহাম্মাদুর রাসুলুল্লাহ ইসলামই আমার প্রিয় ধর্ম ।

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইমঃ বুধবার, মে ৮, ২০১৯,
  • 95 সংবাদটি পঠিক হয়েছে

ভারতের ক্ষমতাসীন দলের বিরুদ্ধে প্রবল তোপ দেগে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী বলেছেন, ধর্মের নামে মানুষের মধ্যে বিভেদের রাজনীতির খেলায় নেমেছে বিজেপি।

তিনি বলেন, লোকসভা নির্বাচনের আগে এই ধর্মকে ব্যবহার করেই বাংলায় মানুষে মানুষে বিভেদ করতে চাইছে তারা।

ভারতের চলতি লোকসভা নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বা বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ পশ্চিমবাংলায় এসে যতোই হিন্দুত্বের তাস খেলছেন।

এর মোকাবিলায় পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল প্রধান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাতিয়ার ধর্ম নিরপেক্ষতা।

তিনি যে নিজেকে ভারতের মাটিতে সর্বধর্ম সমন্বয়ের স্তম্ভ হিসেবে প্রমাণ করতে চাইছেন, তার প্রমাণ দিয়ে চলেছেন বারংবার।

মমতা আরও বলেন, ‘আমি যেমন পুজোয় যাই তেমনি রোজায় যাই, ইফতার-ঈদেও যাই। কারণ আমার ভাল লাগে। ইসলাম শান্তির ধর্ম আমার পছন্দ।

পশ্চিমবঙ্গের লাল মাটির দেশ বাঁকুড়ার রানীবাঁধে এক জনসভায় মমতা হিন্দু ধর্মের স্তোত্র পাঠের পরির্বতে মুসলিম ধর্মের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে দ্ব্যর্থহীন কণ্ঠে বলে ওঠেন, ‘লা ইলাহা ইল্লাল্লাহু মুহাম্মাদুর রাসুলুল্লাহ (সা.)। ইসলামই আমার প্রিয় ধর্ম আল্লাহই সর্ব শক্তিমান ইসলামই শান্তি দিতেপারে হিন্দুরা জঘন্য সন্ত্রাস ।

একইসঙ্গে তিনি খ্রিস্টান ধর্মের প্রতিও শ্রদ্ধা জানান।

এদিন মমতা সাফ জানিয়ে দেন, ‘আমি হিন্দু ধর্মকে শ্রদ্ধা করি তবে আমি মোদি-শাহদের হিন্দুত্বকে মানি না। তাদের কাছ থেকে হিন্দু ধর্ম শিখতে চাই না।’

সম্প্রতি মমতার গাড়িবহরের সামনে কয়েকজন যুবক ‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনি দেওয়ায় বেজায় রেগে যান মমতা।

যা নিয়ে জয় শ্রীরাম রাজনীতিতে পশ্চিমবঙ্গ এখন সরগরম।

বিজেপির নেতারা বারংবার মমতাকে ‘জয় শ্রীরামের’ খোঁচা মেরে হিন্দুত্বকে আঁকড়ে ধরে তীব্র আক্রমণ শানাচ্ছেন।

আর বিজেপি নেতাদের সেই আক্রমণের কাছে মাথা না নুইয়ে মমতা প্রতিটি জনসভায়ই সর্বধর্মের ওপর জোর দিয়ে বক্তব্য দিচ্ছেন।

আজ বাঁকুড়ার সভা থেকে মোদি ও অমিত শাহদের কটাক্ষ করে জানিয়ে দেন মমতা, ‘তোমরা যাকে মানবে, আমি তাকে মানব না।

বিজেপির স্লোগান (জয় শ্রীরাম) আমি মরে গেলেও আমার মুখ থেকে বের হবে না।’ এদিন মমতা পশ্চিমবঙ্গের বিজেপি নেতাদের কটাক্ষ করে বলেন, আগে এই রাজ্যের বিজেপি নেতারা একটা বিড়ি ধরিয়ে তিনবার ফুঁকতো।

এখন তারা টাকার কুমির বনে গেছেন।

এবারের নির্বাচনে মানুষ যাতে বিজেপিকে ভোট না দেয় তার আবেদন জানিয়ে মমতা বলেন, সারা বছর আমরাই আপনাদের পাশে থাকি। আর ভোট এলেই ওরা (বিজেপি) দিল্লি থেকে উড়ে আসে। তাই ওদের একটি ভোটও নয়।

এদিকে পশ্চিমবঙ্গে মমতা ব্যানার্জির বিদায় এবার নিশ্চিত বলে মন্তব্য করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

পশ্চিমবঙ্গের ঝাড়গ্রামে নির্বাচনী সমাবেশে ভাষণ দেয়ার সময় তিনি সোমবার এ কথা বলেন। খবর এনডিটিভির।

মোদি বলেন, দিদি (মমতা) এখন ‘জয় শ্রীরাম’ বললেই তাদের জেলে ভরতে শুরু করে দিয়েছেন। পশ্চিমবঙ্গে রাম নাম নেয়া কি অপরাধ? আরে দিদি, ভগবান রামের কাছে সব মানুষের অহঙ্কার চূর্ণ হয়ে গেছে; আপনার অহঙ্কার আর কত দিন থাকবে? ভগবান রাম আমাদের প্রেরণা।

দিদি বলছেন- বিজেপি নাকি ভগবান রামকে পোলিং এজেন্ট বানিয়ে নিয়েছে।

আমি আজ দিদিকে বলতে চাই- ভগবান রাম আমাদের শিরায় শিরায় আছেন, আমাদের সংস্কারে আছেন।

এই পোস্টটি শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ ...
© All rights Reserved © 2020
Developed By Engineerbd.net
Engineerbd-Jowfhowo
Translate »