২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ রাত ১:০৯

নড়াইলের পল্লীতে হিন্দু দের পানের বরজে বার বার আগুন শঙ্কিত এলাকার হিন্দুরা

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইমঃ সোমবার, ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০২০,
  • 64 সংবাদটি পঠিক হয়েছে

উজ্জ্বল রায় নড়াইল জেলা প্রতিনিধিঃ নড়াইলের পল্লীতে হিন্দু দের পানের বরজে একাধিকবার আগুন দরিদ্র কৃষকের স্বপ্ন পুড়ে ছাই ৩০ শতক জমির পান পুড়ে গেছে ১০ লাখ টাকার ক্ষতি শঙ্কিত এলাকার পানচাষিরা জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে’-ওসি। নড়াইলের নড়াগাতি থানার মাউলি ইউনিয়নের গন্ধবাড়িয়া গ্রামে দরিদ্র হিন্দু কৃষক প্রভাস দাসের (৫৫) পানের বরজে আগুন দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। উজ্জ্বল রায় নড়াইল জেলা প্রতিনিধি জানান, পূর্বশত্রুতার জের ধরে নিজ সম্প্রদায়ের লোকজন মঙ্গলবার (১১ ফেব্রুয়ারি) গভীর রাতে পানের বরজে আগুন দেয় বলে জানিয়েছেন ক্ষতিগ্রস্থ কৃষক প্রভাস দাস। এতে ৩০ শতক জমির পান পুড়ে গেছে। সেই সঙ্গে দরিদ্র কৃষক প্রভাসের পরিবারের স্বপ্ন পুড়ে ছাই হয়েছে। প্রায় ১০ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি। বুধবার দুপুরে পানবরজে সরেজমিনে যাওয়ার পর সাংবাদিকদের কাছে পেয়ে মাটিতে গড়িয়ে কাঁদতে থাকেন প্রভাসের স্ত্রী বন্দনা দাস।
তিনি বলেন, শত্রুরা আমাদের সব শেষ করে দিয়েছে। আজই (বুধবার) আমাদের বরজের পান তুলে বাজারে বিক্রি করার কথা ছিল। এজন্য তিনজন কাজের লোকও আমরা ঠিক করেছিলাম। শত্রুতার জন্য আমরা পথের ফকির হয়ে গেলাম।
প্রভাস দাস জানান, এর আগে গত ১০ জানুয়ারি রাতেও এই পানের বরজের একাংশে আগুন দিয়েছিল শত্রুরা। এছাড়া ২০১৯ সালের ২ ডিসেম্বর গন্ধবাড়িয়া গ্রামের কয়েকজন তাদের (প্রভাস) পরিবারের সদস্যদের হাত-পা কেটে মেরে ফেলার হুমকি দেয়। এ সময় পান বরজ ও বরজের ভেতরের মেহগনি গাছ কেটে ফেলার কথাও বলে তারা। এ ঘটনায় গত বছরের ৪ ডিসেম্বর গন্ধবাড়িয়া গ্রামের নন্দপাল (৬০), অসিত পাল (৬০), সঞ্জয় দাস (৫০), সুব্রত দাস (৩০), উদয় দাস (৫৫), সমীর দাস (৪৫), কৃষ্ণ দাস (৪৫) ও হারান দাসের (৪০) নামে নড়াগাতি থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন প্রভাস দাস। এবার আগুন দিয়ে সব বরজ পুড়িয়ে দেয়া হয়েছে।
গন্ধববাড়িয়া গ্রামের সুনীল দাস (৬২) বলেন, এমন অমানবিক ঘটনা মেনে নেয়া যায় না। এ ঘটনায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই। পাশের ইসলামপুর গ্রামের আনসার চৌধুরী বলেন, এ ধরণের অপরাধ মেনে নেয়া যায় না। আমরা তাদের শাস্তি দাবি করছি।
স্থানীয় ইউপি মেম্বার জাকারিয়া শেখ বলেন, প্রভাস দাসের পানের বরজে আগুন দেয়ার খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে আসি। ক্ষতিগ্রস্থ প্রভাস দাদাকে শান্ত্বনা দেয়ার ভাষা খুঁজে পাচ্ছি না। গ্রাম্য শত্রুতার কারণে এ ধরণের ঘটনা ঘটেছে বলে প্রাথমিক ভাবে জানতে পেরেছি। নড়াইলের নড়াগাতি থানার ওসি রোকসানা খাতুন বলেন, খবর পেয়ে বুধবার সকালে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। জড়িতদের খুঁজে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এই পোস্টটি শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ ...
© All rights Reserved © 2020
Developed By Engineerbd.net
Engineerbd-Jowfhowo
Translate »