২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ বিকাল ৩:৩৮

‌‘ভারতবিরোধী রাজনীতির জন্যই বিএনপি নরেন্দ্র মোদীর সফর নিয়ে প্রশ্ন তুলছে’

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইমঃ মঙ্গলবার, মার্চ ৩, ২০২০,
  • 73 সংবাদটি পঠিক হয়েছে

তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, বিএনপির ভারত বিরোধী রাজনীতির ধারাবাহিকতার জন্যই মুজিববর্ষে সে দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বাংলাদেশ সফর নিয়ে প্রশ্ন তুলছে।

আজ মঙ্গলবার সচিবালয়ে তথ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে আয়োজিত সাংবাদিক সম্মেলনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখা প্রতিবেশী রাষ্ট্র ভারতের অংশগ্রহণ ছাড়া বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠান পূর্ণতা পাবে না।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, আসলে বিএনপির মূল রাজনীতিই হচ্ছে ভারত বিরোধিতা। ভারত বিরোধী রাজনীতি তাদের মূল প্রতিপাদ্য বিষয়, তাই এর ধারাবাহিকতা রক্ষার জন্যই ফখরুল ইসলাম আলমগীর এই সব অবান্তর প্রশ্ন তুলছেন। বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এই ধরনের প্রশ্ন তোলার দুটি উদ্দেশ্য রয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, এর মধ্যে একটি হচ্ছে তাদের ভারত বিরোধী যে রাজনীতি সেই রাজনীতির ধারাবাহিকতা রক্ষা করা, আর একটি হচ্ছে বাংলাদেশে যে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিরাজ করছে তার উসকানি দেওয়া। আমি আশা করবো তারা এই পথ পরিহার করবে।

হাছান মাহমুদ বলেন, বঙ্গবন্ধুর মুক্তির জন্য তৎকালীন ভারত সরকার অবদান রেখেছে এবং প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী বিভিন্ন দেশে ছুটে গেছেন। সেই আন্তর্জাতিক চাপ ও বিশ্ব-জনমতের কারণেই পাকিস্তান বঙ্গবন্ধুকে মুক্তি দিতে বাধ্য হয়েছিল। সে কারণেই মোদিকে মুজিববর্ষের অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। প্রতিবেশী রাষ্ট্রগুলোকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। মুজিববর্ষের জন্মশতবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে যদি ভারতের অংশগ্রহণ না থাকে, তাহলে আমি মনে করি মুজিববর্ষের অনুষ্ঠানটি পূর্ণতা পায় না।

ভারতের অংশগ্রহণ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এই বিষয়কে কেন্দ্র করে সাম্প্রদায়িকতা উসকে দেওয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেন তথ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, বাংলাদেশ সরকার বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে ভারতের প্রধানমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ জানিয়েছে। সেদেশে কোন দল ক্ষমতায় সেটা বিবেচ্য বিষয় নয়। যারা ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আগমন প্রতিহত করার ডাক দিয়েছে, তারা দেশের সাম্প্রদায়িকতাকে উসকে দিচ্ছে। তবে তারা হালে পানি পাবে না। তাদের এ প্রচেষ্টা সফল হবে না।

জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মোদি উপস্থিত থাকবেন এ কথা জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, মোদিকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল বেশ কয়েক মাস আগে এবং তিনি সে আমন্ত্রণ গ্রহণও করেছিলেন। বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামে কোনো দেশের যদি একক অবদান থাকে, তাহলে সেটা ভারতের আছে। বাংলাদেশের এক কোটি মানুষ সেখানে আশ্রয় নিয়েছিলেন। ভারত সর্বাত্মকভাবে আমাদের সহায়তা করেছে।

এই পোস্টটি শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ ...
© All rights Reserved © 2020
Developed By Engineerbd.net
Engineerbd-Jowfhowo
Translate »