২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ রাত ১:২৬

ভারতে যেখানে মুসলিমরা সংখ্যাগরিষ্ঠ, সেই সব এলাকায় সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা হয় কেন ?

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইমঃ বুধবার, মার্চ ৪, ২০২০,
  • 140 সংবাদটি পঠিক হয়েছে

দেবাশীষ মুখার্জী (ভূরাজনৈতিক বিশ্লেষক) :
ভারতে যেখানে হিন্দুরা সংখ‍্যাগরিষ্ঠ,সেখানে পূর্ণ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিদ‍্যমান। যেখানে মুসলিমরা সংখ‍্যাগরিষ্ঠ, সেই সব এলাকায় সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা হয়।  সাম্প্রতিক সময়ে দিল্লির দাঙ্গা সংঘটিত হয়েছে, মুসলিম প্রধান এলাকায়। যে কারণে ওখানকার হিন্দুরা অনেক বেশি ক্ষয়ক্ষতির শিকার হয়েছে। দাঙ্গায় নিহত ৫০ জনের মধ্যে ৪২ জন-ই  হিন্দু। কিন্তু সরকারি সংস্থার বিশেষ অনুরোধে, মিডিয়া নিহতদের ধর্মীয় পরিচয় গোপন রাখে – যাতে সাম্প্রদায়িক সহিংসতা সারাদেশে ছড়িয়ে না পড়ে। হিন্দু নামধারী সেক‍্যুলাররা এই সুযোগ নিয়ে,পাকিস্তান ও দেশীয় বিভীষণদের  সুবিধা করে দিতে – অপপ্রচার চালিয়েছে যে, দিল্লিতে হিন্দুরা পরিকল্পিত ভাবে মুসলিম হত্যা করছে। স্মরণ করা যেতে পারে, কংগ্রেস যখন ক্ষমতায় ছিল, তখন পাকিস্তান-নিয়ন্ত্রিত সন্ত্রাসবাদ-কে, হিন্দু সন্ত্রাসবাদ বলে মিথ্যাচার চালিয়েছিল – এই সমস্ত হিন্দু নামধারী সেক্যুলার ও বামপন্থীরা। এই হিন্দুবিদ্বেষী অপপ্রচারে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন সোনিয়া গান্ধী, রাহুল গান্ধী, আহমেদ প‍্যাটেলরা। তারা বিদেশে গিয়ে প্রচার করতেন, আপনারা পাকিস্তান বা আল কায়েদাকে অহেতুক দোষারোপ করছেন – এটা তো হিন্দু সন্ত্রাসবাদ। ওরা কথায় কথায় ‘গৈরিক সন্ত্রাস’ – বলে, হিন্দু জাতিকে বছরের পর বছর অপমান করেছে।আজ বেরিয়ে এসেছে থলের বিড়াল।
আম আদমি পার্টির প্রভাবশালী নেতা তাহির হোসেনের নেতৃত্বে,সম্প্রতি পুলিশ অফিসার অঙ্কিত শর্মাকে নৃশংস ভাবে খুনের মধ্য দিয়ে, দিল্লিতে যে ভয়াবহ সাম্প্রদায়িক সহিংসতার সূচনা হয় ; সেই সহিংসতার প্রধান  সিপাহসালার মহম্মদ শাহরুখকে আজ পুলিশ গ্রেপ্তার করতে সমর্থ হয়েছে।  বিগত ২৩ ফেব্রুয়ারি সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাস কবলিত দিল্লির নীরিহ মানুষদের রক্ষা করতে এগিয়ে আসা পুলিশ বাহিনীর উপর গুলি বৃষ্টি করেছিল এই মোহাম্মদ শাহরুখ। 
সোশ্যাল মিডিয়ার বিশাল অসাধু চক্র এবং সেক্যুলার মিডিয়া মহম্মদ শাহরুখকে হিন্দু প্রমাণ করার জন্য – ঐ শাহরুখকে কাল্পনিক অনুরাগ মিশ্র  নাম দিয়ে প্রচার চালাতে থাকে যে, হিন্দু সন্ত্রাসবাদীরা দিল্লিতে মুসলিম গণহত্যা চালাচ্ছে। মমতা ব্যানার্জি – প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর মত রাজনীতিবিদরা, ওই মিথ্যা অপপ্রচার সমূহকে  সমর্থন জানিয়ে, পরিকল্পিত মুসলিম হত্যার অভিযোগ এনে,বিশ্ব দরবারে ভারতের ভাবমূর্তি খারাপ করে ফেলে।
অবশেষে আজ মঙ্গলবার, গান্ধী পরিবারের শক্ত ঘাঁটি উত্তর প্রদেশের বরেলি থেকে, পুলিশ মোহাম্মদ শাহরুখকে গ্রেফতার করেছে।

এই পোস্টটি শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ ...
© All rights Reserved © 2020
Developed By Engineerbd.net
Engineerbd-Jowfhowo
Translate »