৩রা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ বিকাল ৪:১১
ব্রেকিং নিউজঃ
ভারতে ‘লাভ জিহাদ’ রুখতে বিল পাশ মানিকগঞ্জে একটি হিন্দু পরিবারের উপর হামলা বিশ্ব হিন্দু পরিষদের(ভি,এইচ,পি)তিন দফা হিন্দু সুরক্ষা আইন ও পৃথক মন্ত্রণালয় গঠনের দাবি হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদকে নিষিদ্ধ করার দাবি বাংলাদেশ আওয়ামী ওলামা লীগ জয়ন্তী হালদারকে জোর করে তুলে নিয়েছিল রাশেদ উদ্ধার করে পুলিশ । হামলা চালিয়ে ইরানের শীর্ষ বিজ্ঞানীকে হত্যা তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিলেন শুভেন্দু-ঘনিষ্ঠ সিরাজ খান পার্বত্য চট্টগ্রামের বাসিন্দাদের মধ্যে তীব্র অসন্তোষ বছরে ৪শ’ কোটি টাকার চাঁদাবাজি দৃশ্যমান হলো পদ্মা সেতুর ৫৮৫০ মিটার দুবলার চরে রাস পূর্ণিমায় নিরাপত্তা দিবে কোস্ট গার্ড

ময়মনসিংহে একটি হিন্দু পরিবারে হত্যা প্রচেষ্টায় হামলা

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইমঃ বুধবার, আগস্ট ১২, ২০২০,
  • 55 সংবাদটি পঠিক হয়েছে

ময়মনসিংহ জেলার গফরগাঁও থানার অন্তর্গত রসুলপুর ৫ নম্বর ওয়ার্ডের এক হিন্দু পরিবারকে খুনের উদ্দেশ্যে গত ২রা আগস্ট রাত অনুমান ৮ ঘটিকার সময় কিছু দুরবৃও হামলাকারী সামপ্রদায়িক মানসিকতায় হাতে মারাত্মক অস্র শস্ত্র নিয়া ১) শ্রীমতী অঞ্জলি রানী শীল (৬০) , ২) অমল কৃষ্ণ শীল (২৮), ৩) প্রাথনা রানী শীল (৩৫) ৪) সুবল কৃষ্ণ শীল (৩৫) ৫) মৌ্মি রানী শীল (১৪) কে এলোপাথাড়ি ভাবে নিলাফুলা রক্তাক্ত জখম করে । তাদেরকে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হয় । অমল কৃষ্ণের বৃধ্য মা শ্রীমতী অঞ্জলি রানী শীলের অবস্তা আশংকাজনক ।
হামলাকারীরা হল ১) সিরাজুল ইসলাম (২৬) , ২) মোঃ হাফিজুল ইসলাম (২৮), ৩) মোহাম্মদ কাদির (৪২) ৪) মোঃ রিয়াদ (১৮) ৫) মোছাম্মদ সুমাইয়া (২০), ৬) তাসলিমা (৩৫) ও আরও ৪/৫ অজানা হামলাকারী । ঘটনার সূত্রপাত হলো ইভটিজিংকে কেন্দ্র করে এবং ইভটিজিংএ হিন্দুরা সহযোগিতা না করার কারণে এবং বান্ধবীর মোবাইল নাম্বার না দেওয়ার কারণে এই হিংসাত্মক হামলা হয় । কিছু আবালবৃদ্ধবনিতা তাদের অত্যাচার থেকে রক্ষা পেতে এদিক সেদিক ছুটাছুটি করেও কারো সহানুভতি পায় নি।
বাংলাদেশ মাইনরিটি ওয়াচের পক্ষে আমি অ্যাড রবীন্দ্র ঘোষ গফরগাঁও থানার অফিসার ইনচার্জ অনুকুল সরকার কে জিজ্ঞাশা করলে তিনি জানান যে আহত অমল কৃষ্ণ শীল বাদী হয়ে ৬ জন আসামীর বিরুদ্ধে গত ৩ আগস্ট ,২০ ১ টি হত্যা প্রচেষ্টা মামলা নং ০১ ধারা বাঃ দণ্ড বিধির ১৪৫/৩২৩/৩২৫/৩২৬/৩০৭/৩৭৯/৫০৬/১১৪ দায়ের করেন। থানার ও , সি বলেন একমাত্র আসামী মোসাম্মত সুমাইয়াকে গ্রেফতার করা হয় , পরে সে জামিন প্রাপ্ত হয় । অন্ন্যান্য আসামীরা পলাতক আছে ।
এই মামলার বাদী অমল কৃষ্ণ শীলকে জিজ্ঞাশা করলে তিনি আমাদের কান্না বিজড়িত কন্ঠে বলেন ” আমরা হিন্দুরা কি দেশে থাকতে পারবো ? আমাদের রক্ষা করুন, আমার বৃ্ধ্যা মাকে যেভাবে অস্র দিয়ে মেরেছে তিনি মারাও যেতে পারতেন , আমরা কোথায় যাব ?আমরা বিচার চাই “।
বাংলাদেশ মাইনরিটি ওয়াচ উক্ত হামলার ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছেন এবং আসামিদের গ্রেপ্তার করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য সরকারের নিকট দাবী জানাচ্ছে । আহত বাক্তিদের সুচিকিৎসার বাবস্তা করা হউক ।
A Hindu family attacked at Rasulpur Ward No.5 within Gaffargaon Police station of Mymensingh District on 2nd August,2020 at about 8 p.m. at their house to kill Hindu family with communal intention on a basis of eve-teasing incident within the Hindu Area.
Anjali Rani Sheel (60), Amal Krishna Sheel (60) and Anjal Krishna Sheel (60) , 3) Prathana Rani Shil (35) 4) Subal Krishna Shil (35) 5) Moumi Rani Shil (14) was randomly injured by perpetrators. They were taken to Mymensingh Medical Hospital for treatment. Amal Krishna’s elderly mother Mrs. Anjali Rani Shil’s condition was reported to be critical.
The attackers are 1) Sirajul Islam (26), 2) Mohammad Hafizul Islam (26), 3) Mohammad Qadir (42) 4) Mohammad Riyad (16) 5) Mohammad Sumaiya (20), 6) Taslima (35) and 4 others / 5 Unknown attacker. The onset of the incident was centered on eve-teasing and the violent attack was due to Hindus not cooperating in eve-teasing and not giving their girlfriend’s mobile number. Some young and old rushed here and there to escape their oppression but found no sympathy.
On behalf of Bangladesh Minority Watch, when I Ad Rabindra Ghosh asked , Officer-in-Charge of Gafargaon Police Station, Anukul Sarkar, he said that injured Amal Krishna Shil became the plaintiff-petitioner against 8 accused on August 3, 201 for attempted murder case No. 01 Section B: Penal Code 145/323 / Filed 325/326/307/379/508/114. Police O.C said the only accused, Mosammat Sumaiya, was arrested and later released on bail. Other perpetrators are fugitives.
When the plaintiff in the case, Amal Krishna Shil, was asked, he said in a tearful voice, “Can we Hindus stay in the country? Protect us, the way he killed my old mother with a weapon, she could have died, where shall we go? We want justice.”
Bangladesh Minority Watch has strongly condemned the attack and called on the government to arrest the culprits and take legal action. The injured should be treated properly.

এই পোস্টটি শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ ...
© All rights Reserved © 2020
Developed By Engineerbd.net
Engineerbd-Jowfhowo
Translate »