২রা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ রাত ১২:০১
ব্রেকিং নিউজঃ
ভারতে ‘লাভ জিহাদ’ রুখতে বিল পাশ মানিকগঞ্জে একটি হিন্দু পরিবারের উপর হামলা বিশ্ব হিন্দু পরিষদের(ভি,এইচ,পি)তিন দফা হিন্দু সুরক্ষা আইন ও পৃথক মন্ত্রণালয় গঠনের দাবি হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদকে নিষিদ্ধ করার দাবি বাংলাদেশ আওয়ামী ওলামা লীগ জয়ন্তী হালদারকে জোর করে তুলে নিয়েছিল রাশেদ উদ্ধার করে পুলিশ । হামলা চালিয়ে ইরানের শীর্ষ বিজ্ঞানীকে হত্যা তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিলেন শুভেন্দু-ঘনিষ্ঠ সিরাজ খান পার্বত্য চট্টগ্রামের বাসিন্দাদের মধ্যে তীব্র অসন্তোষ বছরে ৪শ’ কোটি টাকার চাঁদাবাজি দৃশ্যমান হলো পদ্মা সেতুর ৫৮৫০ মিটার দুবলার চরে রাস পূর্ণিমায় নিরাপত্তা দিবে কোস্ট গার্ড

ধর্মীয় উস্কানিমূলক কুৎসা রটানো কারী ইসরাত জাহান রেইলি আটক

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইমঃ শনিবার, নভেম্বর ৭, ২০২০,
  • 143 সংবাদটি পঠিক হয়েছে

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুক ও টুইটারে ধর্ম অবমাননাকর প্রচার চালানোর অভিযোগে মিরপুর এলাকা থেকে ইসরাত জাহান রেইলি (১৯) নামে এক তরুণীকে আটক করেছে র‌্যাব।

নামে বেনামে ৭টি ফেইসবুক আইডি, ২টি ব্যক্তিগত ব্লকভিত্তিক ফেসবুক পেইজ, এবং টুইটারে আইডি হতে দীর্ঘদিন ধরে ধর্মীয় উস্কানিমুলক ও বিদ্বেষী পোষ্ট করে আসতেছে ইসরাত জাহান বেইলি।

বৃহস্পতিবার (৫ নভেম্বর) রাতে র‌্যাব-৪ -এর একটি দল মিরপুরের দারুসসালাম থানা এলাকা থেকে তাকে আটক করে।

শুক্রবার (৬ নভেম্বর) দুপুরে র‌্যাব-৪ সহকারী পরিচালক (অপস) সহকারী পুলিশ সুপার জিয়াউর রহমান চৌধুরী জানান, ইসরাত জাহান রেইলি নামে ওই তরুণী নিজ নামে সাতটি ফেসবুক আইডি, দুটি ফেসবুক পেজ এবং টুইটার আইডি থেকে দীর্ঘদিন ধরে ধর্মীয় উসকানি ও বিদ্বেষমূলক পোস্ট দিয়ে আসছিলেন। তার একাধিক ফেসবুক আইডি নিষ্ক্রিয় হয়ে যাওয়ার পর তিনি নতুন আইডি খুলে এ ধরনের বিদ্বেষ ছড়াচ্ছিলেন।

তিনি আরও জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আটক ইসরাত জাহান অভিযোগের সত্যতা স্বীকার করেছেন। এ ঘটনায় তার বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা প্রক্রিয়াধীন।

বেইলিদের জন্য দেশের সম্প্রীতি আজ চরমে উঠতে বসেছে৷ এদেশের সনাতনধর্মালম্বীরা সবসময় শান্তি প্রিয় জনগোষ্ঠী। কিন্তু প্রায়শ দেখা যায় ধর্ম অবমাননার মিথ্যা অপবাদে বিভিন্ন জায়গায় হিন্দু স্কুলপড়ুয়া ছেলেদের গ্রেফতার করছে পুলিশ৷ ধর্ম অবমাননার বিষয়টা বর্তমানে স্কুলের গন্ডি পেরিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের চৌকাটে গিয়ে পড়েছে৷ কিন্ত এই বেইলিদের জন্য বসতবাড়ীতে হচ্ছে তান্ডব। ধর্মীয় উপাসনালয়ে জ্বলছে আগুন। অনেকে ভিটামাটি রেখেই সীমান্তের আড়ালে হারাচ্ছেন। উদ্বাস্তু’র তকমা লাগিয়ে যুগের পর যুগ অসহায়ের মতো বসবাস করছেন এদের কুনজরে পড়া মানুষগুলো৷ কিন্তু বেইলিরা দু’চারদিন পর জামিনে মুক্তি লাভ করবে। চলবে আবার ধর্ম অবমাননার মিথ্যা অভিযোগ।

এই পোস্টটি শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ ...
© All rights Reserved © 2020
Developed By Engineerbd.net
Engineerbd-Jowfhowo
Translate »