১৬ই অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ রাত ২:৩৯

হরিণের চামড়া ও মাংস পাচারকালে,এনজিও পরিচালক মৃদুল হালদারসহ চার জন গ্রেফতার

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইমঃ বুধবার, সেপ্টেম্বর ৮, ২০২১,
  • 80 সংবাদটি পঠিক হয়েছে

আগৈলঝাড়া প্রতিনিধিঃ-

বরিশালের আগৈলঝাড়া থানার রাজিহার গ্রাম থেকে গোপনে হরিণ জবাই করে চামড়া ও মাংস পাচারকালে মঙ্গলবার রাত সাড়ে দশটার দিকে খামারের মালিক ও স্থানীয় এনজিও আলোশিখা রাজিহার সমাজ উন্নয়ন কেন্দ্রর নির্বাহী পরিচালক জেমস্ মৃদুল হালদারসহ চার জনকে আটক করেছে আগৈলঝাড়া থানা পুলিশ। এসময় পাচারের উদ্দ্যেশ্যে রাখা ৬ টি হরিণের চামড়া ও ৩৭কেজি হরিণের মাংস উদ্ধার করা হয়েছে।
৬ টি হরিণের চামড়া এবং
৩৭ কেজি হরিণের মাংস উদ্ধারের ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে আগৈলঝাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ গোলাম সরোয়ার আরও জানান রাত সাড়ে দশটার দিকে খবর পেয়ে তার নেতৃত্বে খামারের মালিক রাজিহার গ্রামের মৃত স্যমুয়েল হালদারের ছেলে জেমস মৃদুল হালদার (৪৮),
তার কর্মচারী ডাসার থানার নবগ্রামের মৃত অজিত সরকারের ছেলে বিপ্লব সরকার (৩৫), আগৈলঝাড়া উপজেলার আহুতি বাটরা গ্রামের রাম চন্দ্র হালদারের ছেল সুনীল চন্দ্র হালদার (৫৫), একই গ্রামের মৃত চৈতন্য সরকারের ছেলে খোকন সরকার (৩৮)কে আটক করা হয়। এসময় হায়দার নামে আরেক কর্মচারী পালিয়ে যায়।
আটককৃতদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী এনজিওর তৃতীয় তলার ছাদের স্টোর রুম থেকে ছয়টি হরিনের চামড়া, ফ্রিজের মধ্য থেকে ৩৫ কেজি হরিণের মাংস ও দুই হাজার টাকা কেজি দরে ২কেজি মাংস বিক্রি করার সময় তা জব্দ করা হয়। এঘটনায় ব্যপক এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।
গোপন সূত্রে জানা গেছ, খামারের মালিক জেমস মৃদুল হালদার ইতোপূর্বেও গোপনে বিভিন্ন সময়ে সরকারের চোখ ফাঁকি দিয়ে হরিণের মাংস বিক্রি করাসহ বিভিন্ন ব্যক্তির কাছে মোটা অংকের বিনিময়ে হরিণ বিক্রি করলেও তা খাতা কলমে বিভিন্ন ব্যক্তিকে দান করা দেখিয়ে সরকারের বিপুল পরিমান রাজস্ব ফাকি দিয়ে আসছিল। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

এই পোস্টটি শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ ...
© All rights Reserved © 2020
Developed By Engineerbd.net
Engineerbd-Jowfhowo
Translate »