৮ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ রাত ১:৫২
ব্রেকিং নিউজঃ
ড্রাইভিং লাইসেন্সের লিখিত পরীক্ষার স্ট্যান্ডার্ড ৮৫টি প্রশ্ন ব্যাংক ও উত্তর নিজে শিখুন এবং অন্যকে শেখার জন্য উৎসাহিত করুন। আবার ভুমিদস্যুর হাতে আহত সংখ্যালঘু হিন্দু… বাংলাদেশেও অর্থপাচারের অভিযোগ পার্থের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ-পাকিস্তানের সম্পর্ক উন্নয়নে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রশ্নবিদ্ধ ভূমিকা ঢাকায় ভারতের নতুন হাইকমিশনার প্রণয় কুমার ভার্মা ট্রেনের ধাক্কায় নিহত ১১ দুর্ঘটনাস্থলে সিগন্যাল, লাইনম্যান ছিল না আদমশুমারি: জনসংখ্যা সাড়ে ১৬ কোটি, পুরুষের চেয়ে নারী বেশী, কমেছে হিন্দু জনগোষ্ঠী সিলেটের হবিগন্জে হিন্দুদের উপর হামলা একজন নির্যাতিতের আকুতি। রাজশাহী বাঘার কৃতিসন্তান রথীন্দ্রনাথ দত্ত যুগ্ম-সচিব হওয়ায় সর্ব মহলের শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন

সাংবাদিক উৎপল দাসের নিখোঁজের বিষয়ে সরকার অবগত

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইমঃ বুধবার, অক্টোবর ২৫, ২০১৭,
  • 410 সংবাদটি পঠিক হয়েছে

সাংবাদিক উৎপল দাসের ১৫ দিন ধরে নিখোঁজের ঘটনার বিষয়ে সরকার অবগত আছে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী দেশে ফিরলে সাংবাদিক উৎপলের বিষয়ে কথা বলবে বলে জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

বুধবার দুপুরে সচিবালয়ে সড়ক পরিবহন উপদেষ্টা পরিষদের ৪১তম সভা শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, সাংবাদিক উৎপলের নিখোঁজ হওয়ার ঘটনা আমি শুনেছি। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী দেশে ফিরলেই বিষয়টি নিয়ে তার সঙ্গে কথা বলবো।

পূর্বপশ্চিমবিডি.নিউজ নামে একটি অনলাইন নিউজ পোর্টালের সিনিয়র রিপোর্টার হিসেবে কর্মরত ছিলেন উৎপল। ১০ অক্টোবর মতিঝিলের অফিস থেকে বের হওয়ার পর তিনি নিখোঁজ হন।

নিখোঁজের ঘটনায় অনলাইন নিউজ পোর্টালের পক্ষ থেকে রবিবার মতিঝিল থানায় জিডি করা হয়। একই ঘটনায় সোমবার উৎপলের বাবা বাদী হয়ে জিডি করেন একই থানায়। উৎপল ফকিরাপুল এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকতেন। তার গ্রামের বাড়ি নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলার থানাহাটি এলাকায়৷ তার বাবা চিত্ত দাস সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক৷ এখন তিনি স্থানীয় একটি কিন্ডার গার্টেনের অধ্যক্ষ৷ নিখোঁজের পর থেকেই উৎপলের দুটি ফোন বন্ধ রয়েছে বলে জানান চিত্ত দাস।

তবে সোমবার উৎপলের মোবাইল নম্বর নকল করে স্পুফিং কল করে পরিবারের কাছে এক লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করা হয়। অপর প্রান্ত থেকে বলা হয়, উৎপল তাদের কাছে আটক আছে। এক লাখ টাকা দিলে তাকে মুক্তি দেওয়া হবে। চিত্তরঞ্জন দাস এ তথ্য জানিয়ে বলেছেন, নিখোঁজের পর থেকেই তার ছেলের ফোন বন্ধ ছিল। সোমবার হঠাৎ ওই নম্বর থেকে কল করে মুক্তিপণ দাবি করা হয়। পুলিশ জানিয়েছে, সর্বশেষ ধানমণ্ডি এলাকায় উৎপলের মোবাইল সচল ছিল।

এই পোস্টটি শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ ...
© All rights Reserved © 2020
Developed By Engineerbd.net
Engineerbd-Jowfhowo
Translate »