৩০শে জানুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ রাত ৯:৫৩

বরিশালে পিতা হত্যার বিচার চেয়ে মেয়ের সংবাদ সম্মেলন

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইমঃ বুধবার, জানুয়ারি ৯, ২০১৯,
  • 232 সংবাদটি পঠিক হয়েছে

বরিশাল সরকারি দুগ্ধ ও গবাদিপশু উন্নয়ন খামার কর্মচারী মো. দুলাল সিকদার হত্যার বিচার দাবীতে সংবাদ সম্মেলন করেছে তার পরিবারের সদস্যরা। এসময় তারা হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবী জানান। এজন্য উক্ত পরিবার প্রধানমন্ত্রী ও বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনারের হস্তক্ষেপ চেয়েছেন নিহতের পরিবার। বুধবার সকার সাড়ে ১১টায় (০৯ জানুয়ারী) শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত বরিশাল প্রেসক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে নিহতের মেয়ে দোলা সিকদার লিখিত বক্তব্যের মাধ্যমে এই দাবী জানান।লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, ২০১৮ সালের ২২ নভেম্বর বিকাল ৫টার দিকে জমি সংক্রান্ত বিরোধ ও জোড়পূর্বক দখল নিতে না পারার জের ধরে আমার বাবাকে ২০/২৫ জন মাদক ব্যবসায়ী পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে কুপিয়ে ও পিটিয়ে হত্যা করে। এই ঘটনায় আমার মা ওই রাতেই ২২ জনকে আসামী করে কোতয়ালী মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন। যার নম্বর ৬৪, জিয়ার ৮৬৪/১৮। এ ঘটনায় পুলিশ আমাদের বাড়ির আকিল ও মুয়াজের বাড়ির সিসি টিভি’র ফুটেজ জব্দ করে। যাতে হত্যাকান্ডের সম্পূর্ণ ভিডিও ধারন করা আছে।লিখিত বক্তব্যে তিনি আরো বলেন, দীর্ঘ দিন ধরে আমাদের পৈত্রিক সম্পত্তি দখলের চেষ্টায় হুমকি দিয়ে আসছিলো সন্ত্রাসীরা। এর পেক্ষিতে ২০১১ সালের ৬ জানুয়ারী থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করা হয়েছিলো।সর্বশেষ আমাদের জমি এবং খালপাড় সংলগ্ন গাছ কেটে নিয়ে হুমকি দেয়ার প্রেক্ষিতে আমার বাবা দুলাল সিকদার বাদী হয়ে ২০১৮ সালের ১৯ সেপ্টেম্বর আকিল ও মুয়াজকে আসামী করে চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা দায়ের করেন। এজন্য আসামীরা বাবাকে বিভিন্নভাবে হুমকি প্রদান করে আসছিলো। ধারনা করা হচ্ছে এই মামলার কারনেই আমার বাবাকে নৃসংসভাবে হত্যা করা হয়েছে।সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে নিহতের মেয়ে দোলা সিকদার বলেন, খালপাড়ের যে জমি তা আমাদের পৈত্রিক সম্পত্তি। অথচ ওই জমি জেলা পরিষদের কাছ থেকে লিজ নিয়েছে জানিয়ে আমাদের সম্পত্তি দখল করা হয়।মৃত বাবার কথা স্মরণ করে কান্নাঝড়া কন্ঠে দোলা বলেন, আমার বাবার মৃত্যুর পর বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ্ বলেছেন ওই জমি সিটি কর্পোরেশনের। এখন আমরা জমি ফিরে পেয়েছি ঠিকই কিন্তু আমার বাবা আর বেঁচে নেই। ওরা আমার বাবাকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে হত্যা করে।তাছাড়া পুলিশ হত্যাকারীদের গ্রেপ্তারে বিলম্ব করছে বলে অভিযোগ করে দোলা সিকদার বলেন, আসামীরা এখনো এলাকায় বুক ফুলিয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছে। তারা আমাদের পরিবারের সদস্যদের নানা ভাবে হুমকি দিচ্ছে। তাই এমন পরিস্থিতিতে হত্যাকান্ডের সাথে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানিয়েছেন নিহতের পরিবারের স্বজনরা।সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- নিহতের স্ত্রী রহিমা আক্তার, ছেলে নোবেল সিকদার, তার চাচাত ভাই মাহাতাব সিকদার ও মো. রাকিব হোসেন সিকদার।

এই পোস্টটি শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ ...
© All rights Reserved © 2020
Developed By Engineerbd.net
Engineerbd-Jowfhowo
Translate »