২৯শে নভেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ সকাল ১১:৫৮

চাঁপাইনবাবগঞ্জ সেনাসদস্যের বাড়িতে পুলিশের জালে ধরা পড়ল স্মরণকালের বড় অস্ত্রের চালান

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইমঃ বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ২৬, ২০১৭,
  • 207 সংবাদটি পঠিক হয়েছে

পৌরসভার শংকরবাটি বটতলাহাট এলাকার আস্তার আলীর ছেলে সেনা সদস্য সার্জেন্ট শাহীন কাদিরের বাড়ি থেকে সোমবার পুলিশ স্মরণকালের বড় অস্ত্রের চালান আটক করেছে। বিশেষ এই অভিযানে ২২টি বিদেশী পিস্তল, ৪৫টি ম্যাগাজিন ও ১৩৬ রাউন্ড গুলি উদ্ধার হয়েছে। এঘটনায় বিপুল এই অস্ত্রের মূল হোতারা কেউ আটক হয়নি। তবে, জিজ্ঞাসাবাদের জন্য শাহীন কাদিরের সৎমা রোকেয়া বেগম ও চাচাতো ভাই সাকিলকে থানায় নিয়ে এসেছে পুলিশ। চাঞ্চল্যকর অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনাটি এলাকায় ব্যাপক আলোচনার জন্ম দিয়েছে।
পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, বিকেল ৩টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে চাঁপাইনবাবগঞ্জ গোয়েন্দা পুলিশ ও সদর থানা পুলিশের একটি দল শংকরবাটি বটতলাহাট এলাকার সেনাবাহিনীতে কর্মরত সার্জেন্ট শাহীনের বাড়িতে অভিযান চালায়। ওই সময় কোন মানুষজন না থাকা ওই বাড়িটির দরজা ভেঙ্গে ভেতরে ঢুকে পুলিশের দল। তারা একটি ঘরের মধ্যে থেকে অস্ত্র ও গুলিগুলো উদ্ধার করে।
স্থানীয় সূত্র জানায়, বাড়ির মালিক সার্জেন্ট শাহীন দীর্ঘদিন যশোরে কর্মরত ছিলেন। গতকালই বদলী হয়ে রাজশাহী সেনানিবাসে যোগ দিয়েছেন। তার পরিবার এখনও যশোরের রয়েছে। তিনি চাঁপাইনবাবগঞ্জে বাড়িতে থাকেননা। বাড়িটিতে ভাড়াটিয়ারা বসবাস করতো। ওই সূত্র জানায়, সোমবার বিকেলে আইন প্রয়োগকারী সংস্থার সদস্যরা তার সেলফোনে কথা বলেন। কিন্তু এরপর থেকে তার সেলফোন দীর্ঘসময় বন্ধ পাওয়া যায়।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় এক বাসিন্দা বলেন, ‘চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার মনাকষা ইউনিয়নের সীমান্তবর্তী খাসের হাট এলাকার কয়েকজন লোক বাড়িটিতে অবস্থান করতো। বাইরে থেকে আমরা জানতাম তারা গরু ছাগলের ব্যবসা করে’।
অভিযানে থাকা চাঁপাইনবাবগঞ্জের পুলিশ সুপার টিএম মোজাহিদুল ইসলাম বলেন, ‘নাশকতার কাজে ব্যবহারের উদ্দ্যেশে অস্ত্রের বড় চালান যাবে এমন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ দ্রুত অভিযান চালায়। ছাগল ব্যাবসার নামে বাড়ি ভাড়া নেয়া একটি অস্ত্র ব্যবসায়ী চক্র এই অস্ত্রের চালান পাচার করতে চেয়েছিল। এটি সংঘবদ্ধ অস্ত্র ব্যবসায়ীদের কাজ তাদের ধরতে পুলিশী তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে’।
অস্ত্রের মূলহোতা কারা এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘গেল তিনদিন ধরে আমরা এই চালান ধরতে তৎপরতা চালিয়ে আসছিলাম। সংঘবদ্ধ চক্রের হোতাদের নাম ঠিকানা আমাদের কাছে চলে এসেছে। শীগ্রই তাদের আইনের আওতায় আনা হবে’।
অভিযানে উদ্ধার হওয়া অস্ত্রগুলি ইউএসএ মেড লেখা রয়েছে। সুত্র বলছে, সংঘবদ্ধ চক্রের মাধ্যমে বিপুল পরিমাণ অস্ত্র এসেছে ভারত হয়ে।
সার্জেন্ট শাহীনের আধুনিক ওই বাড়ি থেকে ২৯টি ছাগলও পাওয়া যায়।
উল্লেখ্য, চাঁপাইনবাবগঞ্জে পুলিশের হাতে আটক হওয়া এটি অস্ত্রের সবচেয়ে বড় চালান।

এই পোস্টটি শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ ...
© All rights Reserved © 2020
Developed By Engineerbd.net
Engineerbd-Jowfhowo
Translate »