৪ঠা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ বিকাল ৪:৫৫

বিভেদ নয়, জাতীয় ঐক্য গড়তেই হবে: ফখরুল

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইমঃ রবিবার, অক্টোবর ২৯, ২০১৭,
  • 195 সংবাদটি পঠিক হয়েছে

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির নির্বাচনের আগে জাতীয় ঐক্য গড়ে তুলতে আমরা সফল হইনি। কিন্তু সঠিক জায়গায় পৌঁছানোর জন্য সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। আজ আর কোনো বিভেদ নয়। জনতার ঐক্য গড়ে তুলতে হবে। জাতীয় ঐক্য গড়ে উঠলে আমরা গণতন্ত্রের জন্য সফল হবো।’

তিনি বলেছেন, “সরকার সর্বক্ষেত্রে ব্যর্থ। রোহিঙ্গা ইস্যুতে সরকারের ভূমিকা ‘নতজানু’ বলেই ‘রাশিয়া ও চীন’কে বোঝাতে তারা ব্যর্থ হচ্ছে। রাশিয়া, চীন ও ভারত এখনও মিয়ানমারের পক্ষে অবস্থান করছে।”

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে ২০ দলীয় জোটের শরিক দল বাংলাদেশ লেবার পার্টির ৪০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ‘রুখো আগ্রাসন-হটাও দুঃশাসন’ শীর্ষক এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এসব কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন লেবার পার্টির চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান ইরান। বক্তব্য রাখেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য ড. এমাজউদ্দীন আহমদ, দৈনিক আমার দেশের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মাহমুদুর রহমান প্রমুখ।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘২০১৪ সালের আগে জাতীয় ঐক্যের দিকে প্রায় এগিয়ে গিয়েছিলাম। সব দল-মতের মানুষ ঐক্যবদ্ধ হয়েছিল। রীতিমতো বিপ্লব শুরু হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু ঢাকায় এই ফ্যাসিবাদী সরকারের যে নির্যাতন-নিপীড়ন হয়েছে, সে জন্য সফল হতে পারিনি। ওইবার সফল হইনি বলে আর পারব না, তা নয়।’

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশে গণতন্ত্র নেই; ইতিমধ্যে ব্যর্থ রাষ্ট্র হয়ে গেছে।’

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘সরকারের নানা ষড়যন্ত্রের মধ্য দিয়েই আমাদের কাজ করতে হবে। লড়াই করতে হবে, সংগ্রাম করতে হবে। দলকে সংগঠিত করতে হবে। বিএনপি একটি উদার গণতান্ত্রিক দল। আমাদের দলের প্রতিষ্ঠাতা শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান একদলীয় গণতন্ত্র থেকে বহুদলীয় গণতন্ত্র ফিরিয়ে এনেছেন। সংসদীয় গণতন্ত্র ও সংবিধানে তত্ত্বাবধায়কের ব্যবস্থা অন্তর্ভুক্ত করেছিলেন দেশনেত্রী খালেদা জিয়া। বিএনপির লক্ষ্যই হচ্ছে একটি গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা কায়েম করা।’

স্বৈরাচারের বিরুদ্ধে বিএনপি দীর্ঘ ৯ বছর সংগ্রাম করেছে উল্লেখ করে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘১/১১-এর অবৈধ সরকার আমলেও নীরবে আন্দোলন করেছেন দেশনেত্রী খালেদা জিয়া। তিনি কখনও আপস করেননি, করবেনও না।’

মির্জা ফখরুল আরও বলেন, ‘দীর্ঘ ৯ বছর আওয়ামী লীগ অবৈধভাবে ক্ষমতা দখল করে আছে। এ সরকারের বিরুদ্ধেও আন্দোলন চলছে। আন্দোলনে বিএনপির হাজার হাজার নেতাকর্মীকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে, গুম করা হচ্ছে। টিপাইমুখ বাঁধের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাতে গিয়ে ইলিয়াস আলী গুম হয়েছেন।’

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আমরা ২০৩০ সালের ভিশন দিয়েছি। নির্বাচন কমিশন কীভাবে গঠন করা যায়, তা-ও বলেছি। সর্বশেষ ইসিতে গিয়ে আমাদের কথাগুলো পরিষ্কারভাবে বলে এসেছি। গণতান্ত্রিক কাজ করতে যত সুযোগ থাকে, সেগুলো নিয়ে কাজ করতে হবে। দেশে একটা গণআন্দোলন এবং গণঅভ্যুত্থান প্রয়োজন। এ জন্যই সবাইকে প্রস্তুত হতে হবে।’

এই পোস্টটি শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ ...
© All rights Reserved © 2020
Developed By Engineerbd.net
Engineerbd-Jowfhowo
Translate »