১৪ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ রাত ৯:১৫

পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচনে তৃনমূল কি ম্যজিকে জিতলো !!

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইমঃ মঙ্গলবার, মে ৪, ২০২১,
  • 71 সংবাদটি পঠিক হয়েছে

আমার মাথা কাজ করছে না ম্যাজিকটা কি দেখালো তৃনমূল রহস্যটা কোথায় লুকিয়ে !
ভেবেছিলাম কিছুদিন রাজনীতি নিয়ে কিছু লিখব না। কিন্তু লেখার জন্যে প্ররোচিত হচ্ছি কিছু ঘটনাপ্রবাহের তাড়নায়। আমার বিশ্লেষণ অন্তঃসারশূন্য এবং পূর্বাভাস শুধুমাত্র বিজেপিকে জিতিয়ে দেওয়ার উদ্দেশ্যেই বলে যাদের মনে হয়েছে তাদের জন্যে দু’একটা তথ্য বিশ্লেষণ করা খুবই প্রয়োজন মনে করছি। একুশের নির্বাচনে বিজেপি ৮১-টি আসন দখল করেছে–৩ থেকে
৮১-তে উঠে আসা বিজেপি মাত্র ৪ থেকে ১০০০’র ব্যবধানে হেরেছ ৯০টি আসনে। এই ৯০-টি আসন এদিক ওদিক হতেই পারতো–এই ৯০-টি আসনে যারা বিজেপি’র পক্ষে ভোট দিয়েছেন তাদের সংখ্যাটা একেবারেই তুচ্ছ করার মতো নয়। একটা ময়দানে পক্ষে বিপক্ষের ভোটারদের দাঁড় করিয়ে দিলে খালি চোখে বোঝা খুব কঠিন হবে ৪ থেকে ১০০০ ভোটার কোনদিকে দাঁড়িয়েছেন বা কোন দিকে দাঁড়ান নি। এই সংখ্যাটাই বাস্তব–মোট প্রদত্ত ভোটের মধ্যে তৃণমূলকে কতজন ভোটার ভোট দিয়েছেন এবং বিজেপিকে কতজন ভোটার ভোট দিয়েছেন সেটা চোখের সামনে রাখলেই বোঝা যাবে রাজ্যের মানুষ একপেশে সিদ্ধান্ত নেন নি। আর একটি উল্লেখযোগ্য তথ্য হল–রাজ্যের ১০০% ভোটারের মধ্যে তৃণমূলকে সমর্থন করেছেন কমেবেশি ৪৭% ভোটার (৭০%-এর মধ্যে মাত্র ১৭%) এবং রাজ্যের মাত্র ৭০% ভোটারের মধ্যে বিজেপিকে সমর্থন করেছেন কমবেশি ৩৮% ভোটার। ৩০% নিশ্চিত সমর্থনকে সঙ্গে নিয়ে তৃণমূল যুদ্ধে নেমেছিল–বিজেপি ৩০% ছেড়েই যুদ্ধে নেমেছিল। ফলাফলের এই সম্পূর্ণ চিত্র বিশ্লেষণ করলে যে ছবিটা উঠে আসে তা থেকে আমার কাছে এটা স্পষ্ট হচ্ছে যে আমার বিশ্লেষণ বা পর্যবেক্ষণ একটুও ভুল ছিল না। স্পষ্ট মেরুকরণের যে ছবি উঠে আসছে তাতে এটাই পরিষ্কার হল–কিছুদিন আগেও এ রাজ্যে অপ্রাসঙ্গিক থাকা বিজেপি প্রবল প্রতিপক্ষ হিসেবে উঠে এসেছে এবং থাকবেও। তারা এই ৩৮%-কে ৫০%-এ (৭০%-এর মধ্যে) টেনে তোলার মরিয়া চেষ্টা চালাবেই। কিন্তু এই মুহূর্তে সামান্য এদিক ওদিক হলেই আমার পূর্বাভাসকে ছাপিয়ে যেত এই ফলাফল। বড় বড় চ্যানেলে প্রকাশিত জনমত বা একজিট পোলও তৃণমূলের প্রাপ্ত আসনের ধারে কাছে ছিল না। ছিল না, কারণ এ ফলাফল সত্যি সত্যি একটা ম্যাজিক ছাড়া আর কিছু ভাবা যাচ্ছে না।
৩০%-এর প্রবল আশঙ্কা বিজেপি নেতাদের ভাবনার মধ্যে ছিলই–এটা নিয়ে তাঁরা আরও গভীরভাবে ভাববেন নিশ্চয়ই !
যারা আমার পূর্বাভাস নিয়ে ব্যঙ্গ করছেন কদর্য্য খোঁচা মারছেন–তাদের জাতক্রোধের এবং বিশেষ বিশেষ দায়বদ্ধতার কারণগুলো আমি জানি। তারা কোন সূত্রে কতটা রসেবশে আছেন বা কি করে থাকেন তাও জানি। ব্যক্তিগত আক্রমণে যেতে আমার রুচিতে বাধে–যেতে চাইও না।
কেউ কেউ বলছে নির্বাচন কমিশন উপরে দেখিয়েছে বিজেপির ভিতরে কাজ করেছে তৃনমূলের হয়ে নাহলে ইভিএম বক্স তৃনমূল নেতার বাড়ীতে কি করে যায়?
ববি হকিম কি করে ৩০ তারিখ আনন্দবাজার পত্রিকার সাংবাদিকে ডেকে বলে নিউজ কর তৃনমূল ২০০ উপরে সিট নিয়ে জিতবে ম্যজিকটা এখানেই লুকিয়ে এর মূল রহস্য প্রশান্ত কিশোর ভালো বলতে পারবে
ওকে বিশেষ ভাবে জিগ্যেস করলেই থলের বিড়েল বেরিয়ে আসবে।
শুরু থেকেই বিজেপি ভুল করে আসছে অভিশেখ কে গ্রেফতার নারদা সহ সকল মামলাকে তাজা করা তৃনমূল থেকে নব্য আসাদের এত টিকিট দেওয়া ভুলছিল । ত্যাগিদের মুল্যায়ন না করাও ভুলছিল ।
ওভার কনফিডেন্স ও কিছুটা দায়ি ।
দল বা দলের স্থানীয় নেতা কর্মীরা কিন্তু এখনও জানার চেষ্টা না করে চতুর্দিকে তাণ্ডব শুরু করে দিয়েছে। ইতিমধ্যেই পৃথক উত্তরবঙ্গ রাজ্যের দাবি উঠে গেছে–কেন? ফলাফল ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে যে আগুন জ্বালানো শুরু হয়েছে তাতে কিন্তু এই দাবি আরও জোরদার হয়ে উঠবে। কে কাকে বোঝাবে? এ বিষয়ে বস্তুনিষ্ঠ আলোচনা করলেই আপনি বিজেপি হয়ে যাবেন–বিদ্যেবুদ্ধির এমনই বহর !
পৃথক উত্তরবঙ্গের দাবি আর এক সর্বনাশের সূচনা করছে–এখনই যদি এই বিষয়টি নিয়ে মাথা না ঘামানো হয় তাহলে আর একবার বড়সড় আগুন নিয়ে খেলা শুরু হয়ে যাবে। তৃণমূলের স্থানীয় নেতাকর্মীরা কি বুঝতে পারছেন উত্তরবঙ্গের তৃণমূলবিমুখতা কোন দিকে ঘুরে যেতে চাইছে ! সামনেই পুর নির্বাচন, তারাপর দেখতে দেখতে চলে আসবে পঞ্চায়েত নির্বাচন–তার বছর খানেকের মধ্যে লোকসভা নির্বাচন। বিন্দুমাত্র রাজনৈতিক বোধ বুদ্ধি যদি থাকে মস্তিষ্কে তাহলে যাদের আস্থা হারিয়েছেন সর্বাগ্রে তাদের পাশে গিয়ে দাঁড়ান–তাদের তৃণমূল বিমুখতার কারণগুলো বোঝার চেষ্টা করুন–ধীরে ধীরে তাদের আস্থা ফিরিয়ে আনুন। এসব না করে ব্যাপক হামলা চালিয়ে তাদের উপযুক্ত শিক্ষা দেওয়ার চেষ্টা করলে হিতে বিপরীত হয়ে যাবে–অত্যাচারিত মানুষের ক্রোধ সামলানো খুব সহজ হয় না কখনো–এটা এখনি না বুঝলে আর সময় পাওয়া যাবে না। মমতা চাইলে এক সেকেণ্ডের মধ্যে হানাহানি বন্ধ হতে পারে–কতক্ষণে হয় দেখা যাক্ না হলে মানুষের ক্ষোভ আগুন হয়ে জ্বলে উঠবে !!

এই পোস্টটি শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ ...
© All rights Reserved © 2020
Developed By Engineerbd.net
Engineerbd-Jowfhowo
Translate »