১৪ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ রাত ৯:১৮

হিংসা বন্ধ না হলে আমাদের কর্মীরা চুড়ি পরে বসে থাকবে না, তৃণমূলকে হুঁশিয়ারি শান্তনু ঠাকুরের

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইমঃ মঙ্গলবার, মে ৪, ২০২১,
  • 42 সংবাদটি পঠিক হয়েছে

বিধানসভা নির্বাচনের ফল ঘোষণার পর অব্যাহত রাজনৈতিক হিংসা। ‌সেই হিংসা বন্ধ বন্ধ না হলে পাল্টা প্রতিরোধের হুঁশিয়ারি দিলেন বিজেপি সাংসদ শান্তনু ঠাকুর। মঙ্গলবার তিনি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করা ভিডিও বার্তায় বলেছেন, ‘আক্রমণ বন্ধ না হলে আমাদের দলের কর্মীরাও চুড়ি পরে বসে থাকবে না।’

রবিবার বিধানসভা নির্বাচনের ফল ঘোষণার পর থেকে রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে চলছে রাজনৈতিক হিংসা। বেশ কয়েক জন খুনও হয়ে গিয়েছেন। বিজেপি সাংসদ শান্তনু ঠাকুরের অভিযোগ, ‘ভোটে জেতার পর থেকে একটা বিশেষ সম্প্রদায় বিজেপি কর্মী ও সাধারণ মানুষের ওপর অত্যাচার চালাচ্ছে। আমি মুখ্যমন্ত্রীর কাছে অনুরোধ করছি, এই হিংসা বন্ধ করতে আপনি প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিন। প্রশাসনকে বলুন হিংসা বন্ধ করতে। এটা চলতে থাকলে পশ্চিমবঙ্গে দাঙ্গা অনিবার্য হবে। কেননা বেছে বেছে হিন্দুদের বাড়ি ভাঙচুর হচ্ছে। দোকান লুটপাট করা হচ্ছে। গণহত্যার একটা প্রক্রিয়া চলছে।‌ আর এই হিংসার জন্য দায়ী হবেন মুখ্যমন্ত্রী ও তাঁর প্রশাসন।’

তারপরই শান্তনুর হুঁশিয়ারি, ‘এই হামলা চলতে থাকলে বাংলার কেউ সুস্থ থাকতে পারবে না। প্রশাসনকে অনুরোধ করছি, আপনারা এসব বন্ধ করতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করুন। আপনারাই দাঙ্গার পরিবেশ তৈরি করে দিচ্ছেন। প্রশাসনে চাইছে দাঙ্গা বাধুক। আর পশ্চিমবঙ্গে দাঙ্গা হলে তার জন্য দায়ী হবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও তাঁর প্রশাসন।’

দলীয় কর্মীদের উদ্দেশ্যে শান্তনুর নিদান, ‘আমি ভারতীয় জনতা পার্টির সকল কর্মীকে বলছি আপনারা চুড়ি পরে বসে থাকবেন না। আমাদের দলের সর্বভারতীয় সভাপতি জেপিন আড্ডা দিয়ে এসেছেন। তাঁর কাছে আমার আবেদন, তৃণমূলের এই হিংসার প্রতিবাদে সারা দেশজুড়ে ধরনা কর্মসূচি করা হোক। আমি আমার কর্মীদের বলছি, তৃণমূল যদি হিংসা বন্ধ না করে, আপনার রাস্তায় নেমে পাল্টা প্রতিরোধ গড়ে তুলুন।’

এই পোস্টটি শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ ...
© All rights Reserved © 2020
Developed By Engineerbd.net
Engineerbd-Jowfhowo
Translate »