১লা আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ রাত ২:৪২

ঐতিহাসিক ৬ দফা দিবস: স্বাধিকার থেকে স্বাধীনতা।

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইমঃ রবিবার, জুন ৬, ২০২১,
  • 188 সংবাদটি পঠিক হয়েছে

লেখক: আহমেদ রুবাইয়াত ইফতেখার (বাবু)

আজ ৭ই জুন; বাঙ্গালী জাতির মুক্তির সনদ ৬ দফা দিবস।

-শাসনতান্ত্রিক কাঠামো ও রাষ্ট্রীয় প্রকৃতি
-কেন্দ্রীয় সরকারের ক্ষমতা
-অর্থ ও মুদ্রা বিষয়ক ক্ষমতা
-রাজস্ব কর ও শিল্প বিষয়ক ক্ষমতা
-বৈদশিক বাণিজ্য বিষয়ক ক্ষমতা
-আঞ্চলিক সেনাবাহিনী গঠনের ক্ষমতা

মূলতঃ এই ৬টি দাবী আদায়ের লক্ষ্যে পূর্ব পাকিস্তানের সাধারণ মানুষ ‘সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, শতাব্দীর মহানায়ক; অবিসংবাদিত নেতা; স্বাধীনতার মহান স্থপতি; জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান’-এর ডাকে একাত্মতা পোষণ করে আন্দোলন সংগ্রাম চালিয়েছিল বলেই বাংলাদেশ নামক একটি দেশ বিশ্বের মানচিত্রে স্থান করে নিয়েছে।

১৯৬৬ সালের ৭ জুন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ঘোষিত বাঙালি জাতির মুক্তির সনদ ছয়-দফা দাবির পক্ষে দেশব্যাপী তীব্র গণআন্দোলনের সূচনা হয়। পাকিস্তানি শাসন-শোষণ বঞ্চনা থেকে মুক্তির লক্ষ্যে আইয়ুব খান সরকারের বিরুদ্ধে নিখিল পাকিস্তান আওয়ামী লীগের সভাপতি নবাবজাদা নসরুল্লাহ খানের নেতৃত্বে লাহোরে তৎকালীন পূর্ব ও পশ্চিম পাকিস্তানের সব বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলোকে নিয়ে ডাকা বিরোধী দলীয় এক জাতীয় সম্মেলন আহ্বান করলে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৬৬ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি ঐতিহাসিক ছয়-দফা প্রস্তাব পেশ করেন। এরপর থেকেই বঙ্গবন্ধু’র নেতৃত্বে আপোষহীন সংগ্রামের ধারায় ঊনসত্তরের গণঅভ্যুত্থানের দিকে এগিয়ে যায় বীর বাঙালি জাতি। ১১ ফেব্রুয়ারি দেশে ফিরে বঙ্গবন্ধু ছয়-দফার পক্ষে দেশব্যাপী প্রচারাভিযান শুরু করেন এবং বাংলার জনমানুষ স্বতঃস্ফূর্তভাবে ছয়-দফার প্রতি সমর্থন জানায়। ছয়-দফা হয়ে উঠে দেশের শোষিত ও বঞ্চিত মানুষের মুক্তির সনদ। ছয়-দফার প্রতি ব্যাপক জনসমর্থন এবং বঙ্গবন্ধুর জনপ্রিয়তায় ভীত হয়ে স্বৈরাচারী আইয়ুব সরকার ছয়-দফার রূপকার বঙ্গবন্ধুকে ৮ মে গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠায়। বঙ্গবন্ধু’র নেতৃত্বে ৬ দফার প্রতি বাঙালির অকুন্ঠ সমর্থনে রচিত হয় স্বাধীনতার রূপরেখা। জাতির পিতার ২৩ বছরের দীর্ঘ আন্দোলন, সংগ্রাম ও রক্তক্ষয়ী মহান মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে স্বাধীন হয় বাংলাদেশ। পরবর্তী সময়ে ঐতিহাসিক ছয়-দফাভিত্তিক নিয়মতান্ত্রিক আন্দোলনই ধাপে ধাপে বাঙালির স্বাধীনতা সংগ্রামে পরিণত হয়ে ৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধে স্বাধীনতা অর্জন করে।

১৯৬৬ সালের ৭ জুন ৬ দফা দাবির পক্ষে দেশব্যাপী তীব্র গণ-আন্দোলনের সূচনা হয়। গভীর শ্রদ্ধার সাথে স্বরণ করছি এই দিনে আওয়ামী লীগের ডাকা হরতালে টঙ্গি, ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জে পুলিশ ও ইপিআর’র গুলিতে মনু মিয়া, শফিক, মুজিবুল হক ও শামসুল হকসহ ১১ জন বাঙালি শহীদদের৷…

এই পোস্টটি শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ ...
© All rights Reserved © 2020
Developed By Engineerbd.net
Engineerbd-Jowfhowo
Translate »