১০ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ রাত ১১:৫৫
ব্রেকিং নিউজঃ
ড্রাইভিং লাইসেন্সের লিখিত পরীক্ষার স্ট্যান্ডার্ড ৮৫টি প্রশ্ন ব্যাংক ও উত্তর নিজে শিখুন এবং অন্যকে শেখার জন্য উৎসাহিত করুন। আবার ভুমিদস্যুর হাতে আহত সংখ্যালঘু হিন্দু… বাংলাদেশেও অর্থপাচারের অভিযোগ পার্থের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ-পাকিস্তানের সম্পর্ক উন্নয়নে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রশ্নবিদ্ধ ভূমিকা ঢাকায় ভারতের নতুন হাইকমিশনার প্রণয় কুমার ভার্মা ট্রেনের ধাক্কায় নিহত ১১ দুর্ঘটনাস্থলে সিগন্যাল, লাইনম্যান ছিল না আদমশুমারি: জনসংখ্যা সাড়ে ১৬ কোটি, পুরুষের চেয়ে নারী বেশী, কমেছে হিন্দু জনগোষ্ঠী সিলেটের হবিগন্জে হিন্দুদের উপর হামলা একজন নির্যাতিতের আকুতি। রাজশাহী বাঘার কৃতিসন্তান রথীন্দ্রনাথ দত্ত যুগ্ম-সচিব হওয়ায় সর্ব মহলের শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন

হিন্দু ছাত্রীকে প্রকাশ্যে বিবস্ত্র করার চেষ্টা, কে সেই মোল্লা? যার ভয়ে নীরব পুলিশ

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইমঃ বুধবার, মে ১৫, ২০১৯,
  • 267 সংবাদটি পঠিক হয়েছে

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি : উত্যক্ত করার প্রতিবাদ করায় সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের দশম শ্রেণির এক স্কুল ছাত্রীকে প্রকাশ্যে যৌন হয়রানি করা হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে ওই যুবককে এক শালিসি সভায় কটাক্ষ করায় ওই ছাত্রীকে এক সপ্তাহের মধ্যে ধর্ষণের হুমকি দেওয়া হয়েছে। থানায় অভিযোগ করা হলেও পুলিশ গত তিন দিনেও কোন ব্যবস্থা নেয়নি। এমতাবস্থায় ওই স্কুল ছাত্রীর পড়াশুনা বন্ধ হওয়ার উপক্রম হয়েছে। সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলার শোভনালী ইউনিয়নের বালিয়াপুর গ্রামের এক কৃষক জানান, তার মেয়ে কালীগঞ্জ উপজেলার চম্পাফুল আচার্য প্রফুল্ল চন্দ্র মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্রী। তারই এক আত্মীয়া প্রিয়ঙ্কা সরকারের সঙ্গে একই ক্লাসে পড়ার সুবাদে তার মেয়ের সঙ্গে স্কুলে ও কোচিংএ একসাথে যাতায়াত করে।
Protect Florida’s Water Supply Nowতিনি জানান, ধান্যহাটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক একই গ্রামের ওয়াজেদ আলী মোল্ল্যার ছেলে শুভ মোল্ল্যা চম্পাফুল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে পড়াশুনা করার সুবাদে প্রিয়ঙ্কা সরকারকে উত্যক্ত করতো। বিষয়টি তার বাবাকে জানলে উল্টো করে হুমকি দেয় প্রিয়ঙ্কার মাকে। এরপর থেকে শুভ মোল্ল্যা প্রিয়ঙ্কাকে মাঝে মাঝে পথে উত্যক্ত করতো। বর্তমানে শুভ আশাশুনি কলেজে পবালিয়াপুর গ্রামের ওই কৃষক আরো জানান, স্কুলে যাওয়া আসার পথে শুভ মোল্ল্যা তার মেয়েকে অান্টি বলে উত্যক্ত করতো। প্রতিবাদ করলে যাবি কোথায়, তোর সঙ্গে অনেক কিছুই খেলা করব এসব কথা বলতো। গত ৩০ জানুয়ারি শনিবার সকালে তার মেয়ে ও প্রিয়ঙ্কা কোচিংএ যাচ্ছিল। পথিমধ্যে দক্ষিণপাড়ায় রাস্তার পাশে বসে থাকা শুভ মোল্ল্যা তার (কৃষক) মেয়েকে আন্টি বলে ডাকে। এ ছাড়াও নানা আপত্তিকর কথা বলে। প্রতিবাদ করায় শুভ তার মেয়েকে প্রকাশ্যে গায়ের জামা কাপড় খুলে নেওয়ার হুমকি দেয়। হিন্দু মেয়ে ও হিন্দুদের সম্পদ মুসলমানদের ভোগের জন্যই নিয়োজিত বলে জানায় শুভ। এসবের প্রতিবাদ করে চলে আসে প্রিয়ঙ্কা৩১ জানুয়ারি রবিবার সকাল সাড়ে ছয়টার দিকে তার মেয়ে ও প্রিয়ঙ্কা একই সাথে বিদ্যুৎ স্যারের কাছে প্রাইভেট পড়তে যাচ্ছিল। পথিমধ্যে কালিবাড়ি বাজার ব্যবসায়ি সমিতির সাধারণ সম্পাদক শাহীনুরের বাড়ির পাশে শুভ মোল্লা তার মেয়েকে প্রকাশ্যে বিবস্ত্র করার চেষ্টা করার চেষ্টা করে মুখে কামড় দেয়। পিছনে আসা কয়েকটি মেয়ে ও প্রিয়ঙ্কার বাধার মুখে শুভ সেখান থেকে চলে যায়। চলে যাওয়ার আগে এ নিয়ে বাড়াবাড়ি করলে ফল ভাল হবে না বলে জানিয়ে দেয়। বিষয়টি শুভ’র আত্মীয় শোভনালী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মোনায়েম সানা ও শাহীনকে জানানো হলে তারা ওই দিন দুপুর একটার দিকে এক শালিসি সভা ডেকে শুভকে দু’টো চড় মেরে সতর্ক করে। এর কিছুক্ষণ পর শুভ প্রকাশে তার (কৃষক) মেয়েকে সাত দিনের মধ্যে ধর্ষণ করার হুমকি দেয়। উদ্ভুত পরিস্থতি নিয়ে বাধ্য হয়ে ২ ফেব্র“য়ারি থানায় শুভ ও তার বাবার বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়। থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জরুরী ভিত্তিতে শুভকে গ্রেফতারের নির্দেশ দেন উপপরিদর্শক আব্দুর রাজ্জাককে। শুভ বাড়িতে অবস্থান করলেও পুলিশ তাকে গত তিন দিনেও গ্রেফতার করেনি। এমনকি মামলাটি রেকর্ড করাও হয়নি। এমতাবস্থায় নিরাপত্তাজনিতক কারণে তার মেয়ের পড়াশুনা বন্ধ হতে চলেছে। ভীত সন্ত্রস্ত হয়ে পড়েছে প্রিয়ঙ্কাসহ কয়েকজন হিন্দু ছাত্রী। এদিকে বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদের সাতক্ষীরা শাখার সভাপতি মণ্ডলীর সদস্য গোষ্ট বিহারী মণ্ডল জানান, জেলার বিভিন্ন স্থানে হিন্দু মেয়েদের উপর নানাভাবে নির্যাতন করা হচ্ছে। ভাঙা হয়েছে মন্দিরের প্রতিমা। হিন্দুদের জমি জাল দলিল করে দখল করে নেওয়ার প্রক্রিয়া অব্যহত রয়েছে। অধিকাংশ ক্ষেত্রে অভিযোগ করেও প্রতিকার পাচ্ছে না তারা। এটা মেনে নেওয়া যায় না। শোভনালী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মোনায়েম সানা ওই স্কুল ছাত্রীকে প্রকাশে যৌন হয়রানির অভিযোগের কথা নিশ্চিত করে বলেন, শুভ তার আত্মীয় হলেও পুলিশ তাকে গ্রেফতার করুক এটা তিনি চান। তবে স্থানীয়রা জানান, শিবির কর্মী শুভ ইতিপূর্বে বিভিন্ন হিন্দু মেয়েদের উত্যক্ত করতো। তার বিরুদ্ধে নাশতকতা সৃষ্টির অভিযোগও রয়েছে। বালিয়াপুর গ্রামের ওয়াজেদ আলী মোল্ল্যা জানান, তার ছেলে এমন অপরাধ করতে পারে সেটা তিনি বিশ্বাস করেন না। আশাশুনি থানার উপপরিদর্শক আব্দুর রাজ্জাক বলেন, শুভকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। তাকে যে কোন মূল্যে গ্রেফতার করা হবে। তবে তার দাদা মারা যাওয়ায় বাড়ি থেকে ফিরে না আসা পর্যন্ত দায়িত্ব অন্য একজন উপপরিদর্শককে দেওয়া হয়েছে। বি.দ্রঃ ওই স্কুল ছাত্রীর নাম সুপর্ণা সরকার। তার বাবার নাম শেখর সরকার। গ্রাম- বালিয়াপুর, উপজেলা- আশাশুনি, জেলা- সাতক্ষীরা

এই পোস্টটি শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ ...
© All rights Reserved © 2020
Developed By Engineerbd.net
Engineerbd-Jowfhowo
Translate »